,

উত্তর লেংগুরবিলের প্রবাসী মাওলানা দলিলুর রহমানের স্বপ্নের প্রতিষ্ঠান বায়তুর রহমান মাদরাসা!

উত্তর লেংগুরবিলের প্রবাসী মাওলানা দলিলুর রহমানের স্বপ্নের প্রতিষ্ঠান বায়তুর রহমান মাদরাসা!

নিজস্ব প্রতিবেদক :
টেকনাফ সদর ইউনিয়নের উত্তর লেংগুরবিল এলাকায় চলতি বছরের জানুয়ারিতে প্রবাসী আলহাজ্ব মাওলানা দলিলুর রহমান এর অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বায়তুর রহমান মাদরাসা নামে একটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। ১ জানুয়ারি ২০২১ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মাধ্যমে পথচলা শুরু করে এই প্রতিষ্ঠানটি।
সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়, টেকনাফ মূল শহর থেকে পশ্চিমদিকে প্রায় ৪ কি.মি দূরত্ব উত্তর লেংগুরবিল গ্রাম। এই গ্রামেই মরহুম নুর আহমদ এর ওরসে জন্মগ্রহণ করেন আলহাজ মাওলানা দলিলুর রহমান। পারিবারিকভাবে স্বচ্ছল এই পরিবারের প্রায় সদস্যই থাকেন সৌদি আরবে । তিনিও দীর্ঘকাল যাবৎ সৌদি প্রবাসে থেকে হালাল জীবিকা নির্বাহের পাশাপাশি সেখানে ব্যবসা ও সমাজসেবামূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ছিলেন বর্তমানে ও আছেন। কয়েক বছর পূর্বে নিজ জন্মভূমিতে এসে এসব ব্যস্ততার মাঝেও ইসলামের খেদমতে সবচেয়ে বেশি সময় ব্যয় করেন।
নিজ এলাকায় একটি ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখছেন অনেক দিন ধরে। এই স্বপ্ন বাস্তবায়নে তিনি এই মাদরাসার কাজে হাত দেন গেল বছরের (২০২০) দিকে। কয়েক মাসের মাথায় দ্রুততম সময়ে শেষ করেন প্রতিষ্ঠান নির্মাণের কাজ। প্রতিষ্ঠানটি আল্লাহর গুনবাচক নামের সাথে মিলিয়ে বায়তুর রহমান মাদরাসা নামে নামকরণ করেছেন। তাহার মেঝ পুত্র প্রবাসী হাফেজ ইমরানুর রহমান এ প্রতিবেদকের সাথে প্রবাস থেকে মেবাইলে আলাপকালে মাদরাসা নিয়ে তার ইচ্ছা ও স্বপ্নের কথা জানান। তিনি বলেন, এলাকার শিক্ষার্থীরা যারা মাদরাসায় পড়তে ইচ্ছুক তারা যাতে সহজেই পড়াশুনার সুযোগ পায় সেজন্যই এই প্রতিষ্ঠান আমাদের পরিবারের উদ্যোগে করেছি। সঙ্গতিহীন (অভাবগ্রস্থ) শিক্ষার্থী যারা আছেন তারা যাতে ফি সাবিলিল্লাহ এই প্রতিষ্ঠানে পড়তে পারেন সে ব্যবস্থাও রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানকে সদকায়ে জারিয়াহ হিসাবে আল্লাহ যাতে কবুল করেন এই প্রত্যাশা করেন তিনি।
তিনি আরো জানান, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় পবিত্র মাহে রমজানের পরপরই কওমি মাদরাসার নিয়মানুসারে সীমিত আকারে নুরানিতে ছাত্র ভর্তি শুরু হবে।
স্থানীয় এক মুরব্বি জানান আলহাজ্ব মাওলানা দলিলুর রহমান ও তার পরিবারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে এই প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলছেন। এ থেকেই প্রতিষ্ঠানের প্রতি তাদের আন্তরিকতা ও দরদ বোঝা যায়। এখন স্থানীয়রা তাদের সন্তানদের এই প্রতিষ্ঠানে ভর্তি করিয়ে শিক্ষকরাও যদি ছাত্র কালেকশন ও পড়াশুনার মান বৃদ্ধি করে একে এগিয়ে নিতে পারেন তাহলেই সফল হওয়া যাবে।
প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা দলিলুর রহমান বলেন মানুষ আল্লাহর ওয়াস্তে দ্বীনের খেতমত করলে আল্লাহ বড় প্রতিদান দেন। আমি একমাত্র আল্লাহ কে রাজী খুশি করিতে দীর্ঘদিনের স্বপ্ন বাস্তবায়নে এ বায়তুর রহমান মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করেছি।
প্রতিষ্ঠানকে সুন্দর ও যুগোপযোগী করে গড়ে তুলতে বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। ধীরে ধীরে তা বাস্তবায়ন করা হবে ইনশাআল্লাহ। তিনি সকলের দোয়া কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*