,

ছাত্রলীগ নেতার রগ কেটেছে শিবির ক্যাডার

cox pic 1, 3-12-15আরফাতুল মজিদ
কক্সবাজার সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রাজীবুল আলম মোস্তাককে মারধর ও পায়ের রগ কেটে দেয়াকে কেন্দ্র করে কক্সবাজার শহরের হাসপাতাল রোডের জেলা জামায়াত কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগ করেছে ছাত্রলীগের বিক্ষুব্দ নেতা-কর্মীরা। এ ঘটনায় প্রায় দু’ঘন্টা কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। এসময় শহরে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ হয়ে ভূতুড়ে নগরীতে পরিণত হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া রাতভর থমথমে পরিস্থিত বিরাজ করে শহরে।
জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইসতিয়াক আহমদ জয় জানান, সরকারী কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান তৃতীয় বর্ষের ছাত্র এবং কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রাজীবুল আলম মোস্তাককে জামায়াত কার্যালয়ের সামনে পেয়ে মারধর করে শিবিরের চিহিৃত ক্যাডাররা। এসময় তার ডান পায়ের রগ কেটে দেয়। ধারালো অস্ত্রে তার মাথায় ও মুখে আঘাত করা হয়েছে। পরে আশ-পাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে দ্রুত কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে আংশকাজনক অবস্থায় রাত সাড়ে ১০ টার দিকে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।
কক্সবাজার সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার এস বি শর্মা জানান, রাজীবের ডান পায়ের রগ কাটা গেছে। এছাড়া তার মাথায় ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।
এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে ছাত্রলীগের বিক্ষুব্দ নেতা-কর্মীরা জামায়াত কার্যালয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে জামায়াত অফিস সংলগ্ন শিবিবের ভাতে মেচ ও জামায়াত কার্যালয়ের একাংশ পুড়ে যায়। খবর পেয়ে দমকল কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। অন্যদিকে রাস্তায় মহড়া বসায় ছাত্রলীগের বিক্ষুব্দ কর্মীরা। পৃথকভাবে মিছিল-সমাবেশ করা হয়। এছাড়া বাজারঘাটাস্থ ইসলামী ব্যাংক কক্সবাজার শাখায় ইট পাটকের নিক্ষেপ করা হয়েছে। এতে ব্যাংকের বেশ কয়েকটি আইনায় ভাংচুর চালানো হয়। এছাড়া হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা হয়েছে শহরের ঝাউতলা মসজিদ রোড সংলগ্ন জামায়াত নিয়ন্ত্রিত ইউনি কক্স প্রেসে। ঘটনার পর পরেই কক্সবাজার শহরে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। দোকান পাট বন্ধ করে দিক-বেদিক ছুটতে থাকে ব্যবসায়িরা। এদিকে লালদিঘীর পাড়স্থ ছাত্রলীগ কার্যালয়ের সামনে লাঠি-সোঠা হাতে বিক্ষুদ্ধ কর্মীদের ছবি তোলতে গেলে স্থানীয় সংবাদকর্মী আমান উল্লাহ ও আব্দুল আলীম নোবেল লাঞ্চিত হন ছাত্রলীগ কর্মীদের হাতে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে আনেন।
ছাত্রলীগের কর্মীরা জানিয়েছে, রাজীবকে মারধর ও রগ কেটে দিয়ে চিহিৃত শিবির ক্যাডার ও বহিরাগত শিবিরের সন্ত্রাসীরা বাজারঘাটাস্থ কোরাল লীপ প্লাজারের নিচে অবস্থান করেন। ওখান থেকে জড়ো হয়ে তারা পরিকল্পিতভাবে রাজীবের উপর হামলা চালিয়ে পূর্নরায় ওখানে গিয়ে জড়িত হন। পরে ওখান থেকে শিবির ক্যাডাররা ছটকে পড়েন।
এ বিষয়ে শিবির ও জামায়াত নেতাদের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আসলাম হোসেন বলেন, ‘খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে।’
এদিকে হামলার শিকার হয়ে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছাত্রলীগে নেতা রাজীবকে দেখতে যান মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, জেলা পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফৌরদৌসসহ আওয়ামীলীগের অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*