,

শান্তিতে নোবেল পেলেন মালালা-কৈলাস

[আলো নিউজ২৪ ডটকম]90809_1

পাকিস্তানী কিশোরী মানবাধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই এবার শান্তিতে নোবেল পুরস্কার অর্জন করেছেন।

১৭ বছর বয়সী মালালা সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাবান এই পুরস্কারে ভূষিত হলেন। এখন পর্যন্ত গড়ে ৬২ বছর বয়সীরা নোবেল পুরস্কার অর্জন করেছেন।

স্থানীয় সময় ৯ অক্টোবর শুক্রবার নরওয়ের রাজধানী অসলোতে নোবেল শান্তি কমিটি ২০১৪ সালের নোবেল জয়ী হিসেবে মালালার নাম ঘোষণা করে। দুবছর আগে এই দিনেই, অর্থাৎ ৯ অক্টোবর পাকিস্তানের সোয়াতে তালেবান যোদ্ধারা মালালাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়, যে ঘটনা বিশ্বব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি করে। এরপর রাতারাতি বিশ্ব তারকায় পরিণত হন মালালা।

শিশু শিক্ষায় অবদানের জন্য মালালার সাথে এবার যৌথভাবে নোবেল শান্তি পুরস্কার পেয়েছেন ভারতের শিশু অধিকার কর্মী কৈলাস সত্যার্থী।

নোবেল পুরস্কারের প্রবর্তক আলফ্রেড নোবেলের মৃত্যবার্ষিকীর এই দিনটিতে প্রতি বছর শান্তির নোবেল ঘোষণা করা হয়।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ মালালাকে তার ‘দেশের গর্ব’ বলে মন্তব্য করেছেন।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘তার অর্জন অনন্য ও অতুলনীয়। বিশ্বের ছেলেমেয়েরা তার সংগ্রাম ও অঙ্গীকার থেকে শিক্ষা নিয়ে নেতৃত্ব দেবে।’

এ বছর মালালা ও পোপ ফ্রান্সিসসহ ২৮৭ জন নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। গত বছরও মালালা নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন।

এরপর ২০১৩ সালে টাইম সাময়িকীর পারসন অব দা ইয়ারে ভূষিত হন মালালা। এছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘শাখারভ’ মানবাধিকার পুরস্কারসহ বহু পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি। তার আত্মজীবনীও বের হয়েছে।

বর্তমানে সপরিবারে ইংল্যান্ডে বসবাস করছেন মালালা।

আর ৬০ বছর বয়সী কৈলাস গত দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে ভারতে শিশু শ্রমের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছেন, গড়ে তুলেছেন ‘বাচপান বাঁচাও’ আন্দোলন।

শান্তিতে নোবেল জয়ী এই দুইজন এমন দুটি প্রতিবেশী দেশের প্রতিনিধি, যে দেশগুলো ১৯৪৭ সালে স্বাধীন হওয়ার পর থেকে চারবার যুদ্ধে জড়িয়েছে; কাশ্মীর সীমান্তে গতকালও দুই দেশের সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে গোলাগুলি হয়েছে।

রাসায়নিক অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়ার চেষ্টার স্বীকৃতি হিসাবে গত বছর নোবেল শান্তি পুরস্কার পায় আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘অর্গানাইজেশন ফর দ্য প্রোহিবিশন অফ কেমিক্যাল উইপনস (ওপিসিডব্লিউ)’।

পুরস্কার বাবদ একটি সোনার মেডেল ও ৮০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার (১২ লাখ ৫০ হাজার ডলার বা প্রায় পৌন ১০ কোটি টাকা) পাবেন মালালা ও কৈলাস।

আগামী ১০ ডিসেম্বর অসলোতে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের পুরস্কার দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*