,

টেকনাফে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল ও কুরআন তেলাওয়াত করে হেফাজতের আহুত হরতাল পালিত

টেকনাফে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল ও কুরআন তেলাওয়াত করে হেফাজতের আহুত হরতাল পালিত

টেকনাফ প্রতিনিধি ::
হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালের সমর্থনে টেকনাফের বিভিন্ন স্থানে পৃথক ভাবে বিক্ষোভ মিছিল ও পথসভা করেছে ইসলামী সমমনা সংগঠন ও সর্বস্তরের তাওহিদী জনতা। বিক্ষোভ মিছিলে শত শত আলেম ওলামা ও সর্বস্তরের তাওহিদী জনতারা অংশ নেন।
রবিবার (২৮ মার্চ) দুপুর আড়াই টার দিকে টেকনাফ পৌরসভার শাপল চত্বরে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি পৌরসভার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শাপলা চত্বরে এসে শেষ হয়।
এসময় মিছিল থেকে ‘নারায়ে তাকবির, আল্লাহু আকবর’, ‘আমরা সবাই রাসুল সেনা-ভয় করি না বুলেট বোমা শহীদ ভাইয়ের রক্ত-বৃথা যেতে দেবো না,সাবিলুনা সাবিলুনা-আল জিহাদ,আল জিহাদ,বদরের সৈনিকরা- গর্জে উঠো আরেকবার,মসজিদে রক্ত কেন?প্রশাসনের জবাব চাই,মাদ্রাসায় গুলি কেন? প্রশাসনের জবাব চাই। হরতাল সফল হোক সফল হোক’ স্লোগান দিতে থাকেন নেতাকর্মীরা।
এদিকে বিক্ষোভ মিছিলকে কেন্দ্র করে সতর্ক অবস্থান নেয় আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা। তবে মিছিলে অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেনি। এছাড়া দুপুরে শাহপরীরদ্বীপ সর্বস্তরের ওলামায়ে কেরাম ও সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত হ্নীলা প্রধান সড়কে হাজার হাজার ছাত্র ও মুসল্লীরা ব্যরিকেড সৃষ্টি শান্তি পূর্ণ হরতাল পালন করেছেন। হরতাল চলাকালে হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী আন্দোলন রত মুসল্লীদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে শান্তি পূর্ণ কর্মসূচি পালন করায় ধন্যবাদ জানান এবং জনসাধারণের চলাচলে বিগ্ন সৃষ্টি না করার আহবান জানান।
উল্লেখ্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের প্রতিবাদে ২৬ মার্চ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ করে হেফাজতে ইসলাম। এর মধ্যে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে পুলিশের সঙ্গে হেফাজতে ইসলামের কর্মীদের সংঘর্ষে চারজন নিহত হন।
এ ঘটনায় শনিবার (২৭ মার্চ) সারাদেশে বিক্ষোভ এবং রবিবার (২৮ মার্চ) সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেয় হেফাজতে ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*