,

পাসপোর্ট করতে গিয়ে রোহিঙ্গা নারীসহ গ্রেফতার ২

ডেস্ক নিউজ :

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার রঘুনাথপুর পাসপোর্ট অফিসে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে পাসপোর্ট করার চেষ্টার সময় রোহিঙ্গা নারীসহ দুইজনকে আটক করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার (২ মার্চ) সকালে তাদের আটক করা হয়। তারা হচ্ছে মো. সুমন (৩২) ও নুর তাজ (১৮)। এসময় তাদের কাছ একটি ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র, জন্ম সনদ, পাসপোর্টের আবেদন পত্র উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত সুমন বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাসুদিপাড়ায় এবং নুর তাজ দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীর সবুজবাগে বসবাস করে আসছিল।

বুধবার বিকেলে র‌্যাব-১১ কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিনের স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

র‌্যাব জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রোহিঙ্গা নারী নুর তাজ জানিয়েছে, সে কক্সবাজারের টেকনাফের বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তার সহযোগী পাসপোর্ট দালাল মো. সুমনের সহায়তায় নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে বিদেশে যাওয়ার জন্য পাসপোর্ট করার জন্য আবেদন করে। সে জানায়, তার কোনও পিতা-মাতা নেই। সে কক্সবাজারে বস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পালিত মা আনোয়ারা বেগমের কাছে থাকে। কিন্তু, নুর তাজের কাছে আলামত পর্যালোচনা ও অনুসন্ধানে করে দেখা যায়, তার বাবার নাম সাদিক। তিনি বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় থাকেন।

র‌্যাব আরও জানায়, মা শারমিন ও দুই ভাই আনোয়ার হোসেন ও পরেশ সাদিকের সঙ্গে গত চার বছর ধরে ঢাকার মুগদা এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছেন নুর তাজ। তারা এর আগে বেশ কয়েকবার নারায়ণগঞ্জের জালকুড়িতে বসবাস করেছিলেন। সে রোহিঙ্গা হয়েও বাংলাদেশি নাগরিক পরিচয় দিয়ে তার মায়ের নামে জাতীয় পরিচয়পত্র, ভাই আনোয়ার হোসেনের নামে পাসপোর্ট তৈরি করে। গ্রেফতার নুর তাজ ২০২০ সালে জন্মসনদ তৈরি করে তার মায়ের পরিচয়পত্র ব্যবহার করে পাসপোর্ট তৈরির চেষ্টা করছিল। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার (২ মার্চ) নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক মো. সুমন ঢাকার মতিঝিলে একটি ট্রাভেল এজেন্সিতে চাকরির আড়ালে পাসপোর্ট, জন্মসনদ, জাতীয় পরিচয় পত্র তৈরিতে সহায়তা করে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নেয়। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*