,

চন্দনাইশে টেকনাফের হারুনসহ আটক ২

চন্দনাইশ থানা এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ২ হাজার ৫৯০ পিস ইয়াবা ও ৪০ লিটার চোলাই মদসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি পিকআপ জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানার দক্ষিণ লম্বরী (জালালের বাড়ী) এলাকার মোঃ জালাল উদ্দীনের ছেলে মোঃ হারুন (২৭) ও চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ উপজেলার হাশিমপুর ইউনিয়নের উত্তর হাশিমপুর (সৈয়দাবাদ কাজীর বাড়ী) এলাকার মৃত কাজী মোহাম্মদ ফজলুল কবিরের ছেলে কাজী মোহাম্মদ সাইফু ওরফে সাইফুদ্দিন (৪০)।পুলিশ জানায়, শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে পাঁচটায় দোহাজারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আই.সি পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আব্দুল হালিম সঙ্গীয় অফিসার-ফোর্সসহ দোহাজারী পৌরসভার ডিডিএল টাওয়ারের সামনে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে চট্টগ্রামগামী একটি পিকআপ (চট্টমেট্রো-ন-১১-৭৩৮৭) তল্লাশি করে দুই হাজার পাঁচশ’ পিস ইয়াবাসহ মোঃ হারুনকে গ্রেফতার করে। এসময় ইয়াবা বহনকাজে ব্যবহৃত পিকআপ গাড়ীটি জব্দ করা হয়।

অপরদিকে বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) দুপুর পৌণে দুইটায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চন্দনাইশ থানার এস.আই মোঃ হাছান উদ্দিন সঙ্গীয় অফিসার-ফোর্সসহ উপজেলার হাশিমপুর ইউনিয়নের উত্তর হাশিমপুর সৈয়দাবাদ এলাকায় কাজী বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে জিআর পরোয়ানাভুক্ত আসামি কাজী মোহাম্মদ সাইফু প্রঃ সাইফুদ্দিনকে আটক করে। এসময় তাঁর বসত ঘরে তল্লাশি করে ৯০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ৪০ লিটার দেশীয় তৈরী চোলাইমদ উদ্ধার করে।

চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ নাসির উদ্দীন সরকার দুইজনকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, “আটক আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইয়াবা বহনকাজে ব্যবহৃত পিকআপটি জব্দ করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*