,

ঘুমধুমে বিজিবি-বিজিপি বৌঠক; সীমান্ত সুরক্ষায় যৌথ টহলের সিদ্ধান্ত

শ.ম.গফুর ::

ঘুমধুমে বিজিবি-বিজিপি'র সৌজন্য সাক্ষাতে সীমান্ত সুরক্ষায় যৌথ টহলের সিদ্ধান্তবান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম সীমান্তে বাংলাদেশ সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি)এবং মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিজিপি’ মধ্যকার রিজিয়ন পর্যায়ের সোজন্য বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।৮ সেপ্টেম্বর দুপুরে ঘুমধুম সীমান্তের নোয়াপাড়া মৈত্রী ব্রীজ সংলগ্ন এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।বৈঠক পরবর্তী দুপুর ৩টা ২০ মিনিটের সময় বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি)’র পক্ষ্যে প্রেস ব্রিফিংয়ে বৈঠকের বিস্তারিত তুলে ধরেন বিজিবি’র কক্সবাজারস্থ সদর দপ্তর রিজিয়নের(অপারেশন অফিসার)লেঃকর্ণেল সরকার মাহমুদ মোস্তাফিজুর রহমান।এসময় ৩৪ বিজিবি’র অধিনায়ক আলী হায়দার আজাদ আহমদ, নাইক্ষ্যংছড়িস্থ ১১ বিজিবি’র অধিনায়ক শাহ আবদুল আজিজ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মিয়ানমার বিজিপি’র ১১ সদস্যের প্রতিনিধিত্ব করেন রিজিয়ন কমান্ডার চে নাইং উ।বৈঠকটি প্রতি ৩ মাস অন্তর-অন্তর হয়।করোনার কারণে এবারের বৈঠক বিলম্বিত হলেও ধারাবাহিকতায় এবারের বৈঠকে সীমান্ত সুরক্ষায় মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর সাথে যৌথ টহল পুনরায় শুরু করার জন্য একমত পোষণ করা হয় বলে মিঃমোস্তাফিজ জানিয়েছেন।বাংলাদেশ- মিয়ানমার বন্ধুত্বপূর্ণ দেশ।উভয় দেশের সীমান্ত সুরক্ষায় সৌহার্দ্য পূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।সীমান্তে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী সজাগ থাকার আহবান জানিয়ে পূর্বের মত বিওপি থেকে ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে সৌজন্য বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে উভয় দেশের প্রতিনিধিদল এক মত পোষণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*