,

টেকনাফ পৌরসভা জেটিঘাটে চলিতেছে বেপরোয়া চাঁদাবাজি শীর্ষক ফেইসবুক পোষ্টের প্রতিবাদ

টেকনাফ পৌরসভা জেটিঘাটে চলিতেছে বেপরোয়া চাঁদাবাজি শীর্ষক ফেইসবুক পোষ্টের প্রতিবাদ

“টেকনাফ ক্রাইমস” নামে একটি ভুঁয়া ফেইসবুক আইডি হতে টেকনাফ পৌরসভা জিটিঘাট প্রকাশ এমপি বদি জেটিঘাটে চলিতেছে বেপরোয়া চাঁদাবাজি শীর্ষক পোষ্টখানা আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে। উক্ত সংবাদে উল্লেখ করেছে যে, একটি প্রভাবশালি মহলের নেতৃত্বে উক্ত জেটিঘাটে জন প্রতি ২০ টাকা করে চাঁদা দিয়ে জেটিঘাটে প্রবেশ করিতে হয়। জেটিঘাটে চাঁদাবাজি ও মাদক বিক্রি করে সংসদ শাহিনা বদির দুর্নাম ভিবিন্ন দিকে ছড়িয়ে চিটিয়ে যাচ্ছেন উল্লেখ করে বলেন, পৌরসভার প্যানল মেয়র মৌঃ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্ব ও পৃষ্টপোষকতায় এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে কৌশলে অনেক দর্শনার্থীদের কাছে ইয়াবা বার্মিজ মদের বোতল গাঁজা ইত্যাদি মাদক বিক্রি করেতেছেন। এই চাঁদাবাজি ও মদক বিক্রির উপার্জন থেকে ৫০% টাকা বি জি বির গোয়েন্দা ও কোম্পনি কামান্ডার বরাবর পৌছে যাচ্ছেন,বাকি ৫০% মুজিবের হিসাবে রাখেন। পোষ্টে উল্লেখিত লিখাটি সম্পূর্ন ভুঁয়া ও মানহানিকর। প্রকৃত পক্ষে আমি প্রতিবাদকারী মোক্তার হোসাইন ১১/০৪/২০২০ ইং তারিখে শর্তসাপেক্ষে ১৪২৭ বাংলা ১ (এক) সনের ১লা বৈশাখ হইতে ৩০ শে চৈত্র পর্যন্ত সময়ের জন্য (টেকনাফ-পৈারসভাধীন) বাংলাদেশ মায়ানমার ট্রানজিট জেটি ঘাট যথাযথ নিয়মে ইজারা গ্রহণ করিয়াছি। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় এর স্থানীয় সরকার বিভাগ পৈার-২ শাখার স্বারক নং- ৪৬.০০.০০০০.০৬৪.৩২.১৩১.১৫/১৭৬ তারিখ ০২/০২/২০২০ ইং এর ক্ষমতা বলে ইজারাদাতা টেকনাফ পৌরসভার মাননীয় মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম টেকনাফ ০১/১১/২০১৬ তারিখের স্বারক নং ৪১৪ সুত্রোক্ত মতে আমাকে ইজারা প্রদান করিলে আমি ইজারা গ্রহণ করি। সেখানে রেইট/টোল তালিকা মতে জেটি ঘাটে যাত্রী ভ্রমণ জনপ্রতি ১০ টাকা, যানবাহন পার্কিং (টমটম, সিএনজি) দৈনিক ১০ টাকা ও যানবাহন পার্কিং (বাস, মিনিবাস, ট্রাক) দৈনিক ৩০ টাকা আদায়ের কথা উল্লেখ রহিয়াছে। সে মতে আমি ইজারা গ্রহিতা টোল আদায় করার জন্য, লাল মিয়া, জাহাঙ্গির, মুনাফ, কাদিরা, বসির, সোনা মিয়া, রুহুল আমিন প্রকাশ লুইল্যা, আমান উল্লাহ, লাল কিয়ারাকে দৈনিক বেতনে শ্রমিক হিসাবে নিয়োগ প্রদান করি। তারা প্রতিনিয়ত স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় এর স্থানীয় সরকার বিভাগ পৌর-২ শাখার প্রকাশিত ২৩/১০/২০১৪ তারিখের প্রকাশিত গেজেট এর নিয়মাবলী অনুস্বরন করে টোল আদায় করে থাকে। মূলত টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মুহাম্মদ ইসলাম, প্যানেল মেয়র মাওঃ মুজিব ও বিজিবি সদর কোম্পানী কমন্ডার ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের সুনাম ক্ষুন্ন করে মানহনি করতে এই পোষ্টটি প্রকাশ করেছে। আমি উক্ত পোষ্টের তীব্রনিন্দা প্রতিবাদ জানাচ্ছি। প্রকাশিত সংবাদ মূলক পোষ্টে কাউকে বিভ্রান্ত না হবার অনূরোধ জানাচ্ছি। সাথে “টেকনাফ ক্রাইমস” নামে ভুঁয়া ফেইসবুক আইডির বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়াধীন ও রয়েছে।

প্রতিবাদকারী

মোক্তার হোছাইন
ইজারা গ্রহীতা
বাংলাদেশ মায়ানমার ট্রানজিট জেটি ঘাট
চৌধুরী পাড়া, টেকনাফ পৌরসভা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*