,

“সৃষ্টিকর্তার প্রতি নিবেদন”

“সৃষ্টিকর্তার প্রতি নিবেদন”

মোঃ আদিল মাহমুদ

হে স্রষ্টা, কেনো আমায় সৃষ্টি করিয়া করিলা নিচু,

আমি কি চাহিয়া ছিলাম, তোমার কাছে কিছু!

সৃষ্টি যখন করিয়াছ, কেনো পৃথিবীতে দিয়াছ প্রাণ,

মহাবিশ্বে কি ছিলো না আর, অন্য কোন স্থান!

কোটি নক্ষত্র পুঞ্জের পুষ্প, পৃ-তে নাই কোনো বাচ্চু,

ছোট-বড় সকল সৃষ্টি, ঘুঁড়িতেছে তোমার পিছু।

মানি আমি তুমি মহা শক্তিশালী, আছে মহাজ্ঞান,

পাঠিয়েছ কেনো ভূ-তে, যেথা মানুষ গড়ে গোরস্থান?

যখন আমি তোমার আরশমালায়, হয়েছিলাম খাপ,

তখন নিশ্চয়ই আমার গাত্র ছিল, পুরো নিষ্পাপ!

তোমার ইচ্ছায় ভর করিয়া, নিজেই প্রেরণ করিয়া,

দুঃখ-কষ্ট, সুখ-শান্তি ও অন্ন-বস্ত্র, পূর্ণ মাত্রায় দিয়া।

বিধাতা তুমি দয়ালু ক্ষমাশীল, মনুজ যে খারাপ,

কেনো আজ আমার মাটির শরীরে, শতো পাপ!

জন্মের আগের, এমন কি অপরাধে সাজা আনিয়া,

তোমার এই বান্দাকে, রহম করিয়া দাও বলিয়া!

দোজখ সৃষ্টি করিয়াছ, জনকে শাস্তি দিবে সেথায়,

আর মানব থাকে, নৃ-কে শাস্তি দেয়ার নেশায়।

তোমার উদ্দেশ্য বুঝা, বড়ই কঠিন তুমি পাহারায়,

কিন্তু মানবজাতি ভাবে, তারা ক্ষমতাশালী এ ধরায়!

সৃষ্টিকর্তার অস্তিত্ব, স্বীকার করে সবাই অন্ধ গায়,

তোমার সকল আদেশ, অমান্য করে নির্দ্বিধায়।

তোমায় বিশ্বাস করার মতো, কোটি নজির সহায়,

অন্যদিকে ইনসান বাঁচিয়া থাকে, ক্ষমতার আশায়।

তোমার ভয়ে নিয়ত কাপে, পৃথ্বীতে নেকির অধর,

তাই বলে আমার জন্মস্হান, কেনো নিত্য কুঁড়েঘর!

কাউকে করিয়াছ কোটিপতি, ক্ষমতাবান, নিশাচর,

তারাই আজ তোমার সৃষ্টিকে, করিতেছে খচ্চর।

হোমোর প্রতি চলিতেছে অন্যায়, জন মনে প্রহর,

তুমি সব দেখিয়া, কেনো যে না দেখার ভান কর!

তুমি সীমাহীন সর্বত্র বিরাজমান, প্রশংসায় নর,

তোমার একটু ইশারায়, উর্ধ্ব গগনে উঁড়িবে ধর!

কুঁড়েঘরে জন্ম বলিয়া, হইয়া ছিলাম আনমনা,

চারিদিকে দেখিতেছি, লক্ষ মূক,বয়রা ও কাণা!

তোমার সৃষ্টি, করিতেছে ধ্বংস তারা নাই মানা,

তাই তোমার সৃষ্টির রহস্য, বুঝা বড়ই অজানা!

উর্ধ্বে ছিলাম আরাম করিলাম, ছিলাম রানা,

মনুষ্যের কর্ম দোষে আজ, লোকের নাই খানা।

তুমি বসুধায় প্রেরণ করিয়া, আমার কলুষ পানা,

সব কিছুর কর্ম রহস্য, শুধুমাত্র তোমারই জানা!

লেখক: পুলিশ ইন্সপেক্টর (তদন্ত)

পরশুরাম মডেল থানা ফেনী জেলা      ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*