,

কর্ণফুলীতে কিশোরীক ধর্ষণের চেষ্টা!

কর্ণফুলীতে পেয়ারার লোভ দেখিয়ে কিশোরীর স্পর্শকাতর জায়গায় ধর্ষণের চেষ্টা!

 

মোঃ মনির চট্টগ্রাম প্রতিনিধি >>

চট্টগ্রাম কর্ণফুলী উপজেলায় ৯ বছরের কন্যা শিশুকে স্পর্শকাতর জায়গায় হাতে দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে আহমদ মিয়া (৬০) নামে একজন বৃদ্ধেকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারের ২৪ ঘন্টার মধ্যে জামিনে মুক্তি পেয়েছে বলে অভিযোগ করেন ভিকটিমের মা জেসমিন আকতার।

অভিযুক্ত আহমদ মিয়া বড় উঠান ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ডের হাজী লাল মিয়া বাড়ীর মৃত লাল মিয়ার ছেলে। সোমবার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হয় এবং সন্ধ্যায় জামিনে বের হয়ে আসে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার পাশের বাড়ির আহমদ মিয়ার পুকুরে গোসল করতে যান জান্নাতুল ফেরদৌস ঝুমু(৯)। এসময়  ওখানে যান আহমদ মিয়াও এবং সে কিশোরী ঝুমুর সাথে পুকুরে নামে ঝুমুকে ছড়িয়ে ধরলে ঝুমু কান্না করতে চাইলে তাকে একটা পেয়ারা হাতে দিয়ে পরনের প্যান্ট খুলে ওর স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দিতে থাকলে সে ব্যথায় শোর চিৎকার দেয়।ঝুমু চিৎকার শুনে তার মা ও আশপাশের লোকজন পুকুর পাড় থেকে ঝুমুকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

ইউপি সদস্য সাইফুদ্দীন জানান, বিষয়টি আমাকে জানালে আমি আহমদ মিয়ার সঙ্গে কথা বলি। বিষয়টি তিনি অস্বীকার করায় আমি তাদেরকে থানায় যাওয়ার পরামর্শ দিই।

এই ঘটনার তদন্ত অফিসার এস আই নাছির উদ্দীন  জানান, ভিকটিমের মা সহ থানায় এসে বিষয়টি জানালে, বিষয়টি আমরা আমলে নিয়ে আহমদ মিয়াকে গ্রেফতার পূর্বক আদালতে সোদর্প করি।

কিশোরীর মা জেসমিন জানান, আমার মেয়েকে উদ্ধার করে বিষয়টি স্থানীয় ইউপি মেম্বার সাইফুউদ্দীনকে অবগত করলে তিনি বিষয়টি থানায় জানাতে বলে। বিষয়টি আমি কর্ণফুলী থানাতে গিয়ে জানালে তারা আহমদ মিয়াকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়। কিন্তু আমার আর্থিক অবস্থা দূর্বল হওয়ায় আদালতে আমার পক্ষে কোন অ্যাডভোকেট দিতে পারিনি। পরদিন দেখি আহমদ মিয়া নাকি জামিনে এসে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*