,

আফগানিস্তানে আত্মঘাতী হামলা গুলিতে ২৫ শিখ নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে শিখ ধর্মাবলম্বীদের একটি স্থাপনায় অজ্ঞাত বন্দুকধারী ও আত্মহত্যা বোমা হামলাকারীদের হামলায় অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন। বুধবার কাবুলে এই হামলা হয়েছে জানিয়ে দেশটির সরকার বলছে, নিরাপত্তাবাহিনীর অভিযানে সব হামলাকারীও নিহত হয়েছেন।

দক্ষিণ এশিয়াজুড়েই শিখ ধর্মাবলম্বীরা প্রায়ই হামলার শিকার হয়ে আসছেন। টুইটারে তালেবানের একজন মুখপাত্র কাবুলের ওই হামলার দায় অস্বীকার করেছেন।

বুধবার সকালের দিকের এই হামলার পর আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারিক আরিয়ান বলেন, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে অভিযান পরিচালনা করেছেন এবং তারা সব হামলাকারীকে হত্যা করেছেন। তবে ওই হামলায় ঠিক কতজন অংশ নিয়েছিল সেব্যাপারে বিস্তারিত কোনও তথ্য দেননি ওই কর্মকর্তা।

মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ধর্মীয় ওই স্থাপনায় হামলায় ২৫ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত ৮ জন। এছাড়া ওই ভবন থেকে আরও ৮০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

তালেবানের সঙ্গে আফগান সরকার শান্তি চুক্তিতে পৌঁছাতে এবং সমঝোতায় একটি দল গঠন করতে ব্যর্থ হওয়ায় দেশটির সরকারকে যুক্তরাষ্ট্র সরকার ১ বিলিয়ন ডলার সহায়তা বাতিলের ঘোষণা দেয়ার একদিন পর এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এর আগে, পার্লামেন্টে দেশটির শিখ সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি নরেন্দর সিং খালসা বলেন, ধর্মীয় স্থাপনায় অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের হামলায় অন্তত চারজন নিহত ও আরও দুই শতাধিক মানুষ আটকা পড়েছেন।

তিনি বলেন, কাবুলের ধর্মশালায় আত্মঘাতী তিন বোমা হামলাকারী প্রবেশ করে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। ধর্মশালায় উপাসনার জন্য শত শত মানুষের উপস্থিতি লক্ষ্য করে বন্দুকধারীরা নির্বিচার গুলি চালিয়েছে।

সূত্র : রয়টার্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*