,

আঞ্চলিক মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড  “রাবিতাতুল মাদারিস আল-ইসলামিয়া’র” কেন্দ্রীয় পরীক্ষা শুরু ৬ এপ্রিল

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফ :
রাবিতাতুল মাদারিস আল-ইসলামিয়া কক্সবাজার (জেলা কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড)
এর কেন্দ্রীয় পরীক্ষা ৬ এপ্রিল হতে শুরু হবে। এবছর জেলার ২৭ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে মিজান কিতাব ( জামাতে নাহুম) এর ২শত ৯২ জন শিক্ষার্থী কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে রেজিষ্ট্রেশন করেছে বলে জানা যায়।
পরীক্ষা শেষ হবে ১২ এপ্রিল। প্রতিদিন সকাল ৯টা হতে বেলা সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত নির্ধারিত কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
সুত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালে টেকনাফ উপজেলার সকল মাদরাসার মুহতামিম-নাজেমে তা’লীমাত ও বিভিন্ন মাদরাসার প্রতিনিধিগণের উপস্থিতিতে সর্বসম্মত সিদ্ধান্তক্রমে ছাত্রদের পড়া-লেখার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে জামাতে নাহুম (পঞ্চশ শ্রেনী) এর মারকাযী পরীক্ষা নেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। সে হিসাবে সবার সম্মতিতে “রাবিতাতুল মাদারিস আল-ইসলামিয়া কক্সবাজার” (জেলা কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড) নামে একটি আঞ্চলিক বোর্ড গঠন করে, উক্ত বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসাবে আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়া টেকনাফ এর মুহতামিম ও  শায়খুল হাদীস আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ কিফায়তুল্লাহ শফিক দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাওলানা আনীসুর রহমান মাহমূদ ১৫ মার্চ বিকালে জানান, বিগত বছরের ন্যায় এবছর ও জামাতে নাহুম (পঞ্চশ শ্রেনী)  এর মারকাযী পরীক্ষা পূর্ব নির্ধারিত তারিখে অনুষ্ঠিত হবে। চলতি শিক্ষা বর্ষে বোর্ডের অন্তর্ভূক্ত  ২৭ টি মাদরাসা থেকে ২৯২জন শিক্ষার্থী এ বছর পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করেছে। ইতি মধ্যে পরীক্ষার যাবতীয় প্রস্তুুতির কাজ এগিয়ে চলছে। পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলেও তিনি জানান।
রাবিতাতুল মাদারিস আল-ইসলামিয়া কক্সবাজার (জেলা কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড)
এর চেয়ারম্যান, আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ কিফায়তুল্লাহ শফিক জানান, দেশ ব্যাপী কওমী মাদরাসা বোর্ডের অধীনের উপরের জমাত গুলোতে মরকাজী পরীক্ষা নেওয়া হয়। কিন্তু জমাতে নাহুম ( পঞ্চম শ্রেনী) একটি গুরুত্ব পুর্ন জামাত। ওই জামাতের লেখা-পড়ার গুরুত্ব বিবেচনায় ছাত্রদের পড়া-লেখার মানোন্নয়ন ও উৎসাহের লক্ষ্যে “জামাতে নাহুম” এর মারকাযী পরীক্ষা নেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। ইনশাআল্লাহু তা’য়ালা বিগত শিক্ষা বর্ষে অত্র বোর্ডের অধীনে জেলার ১৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ২২২জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে প্রতিষ্ঠার প্রথম বছরেই জ্ঞান পিপাসু শিক্ষার্থীদের মাঝে আশানারুপ সাড়া জাগিয়েছে। তিনি আরো জানান সম্পতি বোর্ডের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পরীক্ষার কার্যক্রম পর্যালোচনা ও জরুরি পরামর্শ সভায় উপস্থিত সকলেই চলমান কার্যক্রমের প্রতি স্বতঃস্ফূত অংশগ্রহণ ও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এবং এ ধারা অব্যাহত রাখার জন্য সকলেই সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।
উল্লেখ্য গত ১৪৪০ হিজরী মোতাবেক ২০১৯ ইংরেজি শিক্ষাবর্ষে জামাতে নাহুম (পঞ্চম শ্রেণি) এর অনুষ্টিত কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় জেলার ১৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ২২২জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে, ৭২ জন মুমতায, ৯৬ জন জাইয়্যিদ জিদ্দা, ১১জন জাইয়্যিদ বিভাগে উত্তীর্ণ হয়েছে। ২৯ শিক্ষার্থী অকৃতকার্য এবং ১৪জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল বলে জানা যায়। ###

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*