,

র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত

 

আলো নিউজ২৪ ডেস্ক: 

টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও পাহাড় কেন্দ্রিক সক্রিয় স্বশস্ত্র ডাকাত দল নির্মূলে র‌্যাবের সাড়াঁশি অভিযানে বন্দুক যুদ্ধে ঘটনায় কুখ্যাত ডাকাত নুরুল আমিন নিহত হয়। এসময় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হলেও বিপূল পরিমাণ অস্ত্রাদি উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব সুত্র জানায়, ১০ ফেব্রুয়ারী (সোমবার) ভোররাত ৩টারদিকে র‌্যাব-১৫ (সিপিসি-১) টেকনাফ ক্যাম্পের একটি চৌকষ আভিযানিক দল উপজেলার হ্নীলা পশ্চিম লেদা নরালী পাড়া পাহাড়ে গোলাগুলির সংবাদ পেয়ে ডাকাত বিরোধী সাড়াঁশি অভিযানে যায়। এসময় পাহাড়ে অবস্থান করা ৬/৭জন স্বশস্ত্র ডাকাত র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে র‌্যাবের ল্যান্সনায়েক আজহারুল ইসলাম এবং সিপাহী মোঃ সোহেল আহত হয়। এরপর র‌্যাব সদস্যরাও সরকারী সম্পদ এবং আত্মরক্ষার্থে  কিছুক্ষণ পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে স্বশস্ত্র দূবৃর্ত্তরা পাহাড়ের ভেতরে পালিয়ে যায়।
গোলাগুলি থেমে গেলে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ১টি থ্রি-কোয়ার্টার গান, ১টি ওয়ান শুটার গান, ৪টি তাঁজা কার্তুজ, ৩টি খালি খোসা, নগদ ১শ টাকাসহ মানি ব্যাগ, ১টি মোবাইল, মিয়ানমারের ১১টি এবং ১টি দেশীয় সিমকার্ডসহ মোবাইলসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাহাড়ে সক্রিয় থাকা ডাকাত দল নুরুল আমিন গ্রুপের গ্রুপ লিডার নুরুল আমিনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। র‌্যাব-১৫ এর তথ্য অধিদপ্তর শাখা এই তথ্য নিশ্চিত করেন।
উল্লেখ্য, রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও পাশর্^বর্তী পাহাড়ে অবস্থান নেওয়া স্বশস্ত্র দূবৃর্ত্তরা মাদক চোরাচালান নিয়ন্ত্রণ, চালান ছিনতাই, ভাড়াটে খুনি, অপহরণ ও মুক্তিপণ বাণিজ্য চালিয়ে শরণার্থী ক্যাম্পসহ আশ-পাশের পরিবেশ দূষিত করে আইন-শৃংখলা পরিস্থিতির চরম অবনতি সাধিত করে আসছে। ###

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*