,

রোহিঙ্গা শিবিরে গুলিবিনিময়, শিশুসহ গুলিবিদ্ধ ১৫ : ৫ জনের অবস্থা আশংকা জনক

 

ফরিদুল আলমঃ

টেকনাফে আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা।
ক্যম্পে বসবাসরত সূত্রে জানা যায়, ৩ ফেব্রুয়ারী (সোমবার) রাত সাড়ে ৮টার দিকে টেকনাফ হ্নীলা মোচনি রেজিষ্টার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্পের (ই বল্ক) এলাকায় চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র অস্ত্রধারী দুই সন্ত্রাসী গ্রুপের সাথে গোলাগুলি সংঘটিত হয়েছে। উক্ত ঘটনায় ৯জন রোহিঙ্গা গুলিবিদ্ধ হয়েছে।
ডাকাত দলের সদস্যরা সবাই জকির ও আমান উল্লাহ ডাকাতের সক্রিয় সদস্য।

এদিকে ঘটনাস্থলের আশে পাশে থাকা রোহিঙ্গারা জানান, দুই পক্ষের মধ্যে প্রায় ৪০-৫০ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এই গোলাগুলিতে ১৩/১৪ জন লোক গুলিবিদ্ধ হয়। এরপর তাদেরকে উদ্ধার করে নয়াপাড়া গণস্বাস্থ্য ক্লিনিকে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের মধ্য থেকে ৯ জনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। বাকী ৪ জন ক্যাম্পের গনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এদিকে এই খবরটি শোনার পর র‍্যাব-১৫ টেকনাফ (সিপিসি-১) কোম্পানী কমান্ডার লেঃ মির্জা শাহেদ মাহতাব ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং এই ঘটনার সাথে যারা জড়িত ডাকাত দলের সদস্যদের ধরতে অভিযান পরিচালনা করা হবে জানা যায়।

গুলিবিদ্ধ রোহিঙ্গা ব্যক্তিরা হচ্ছে, মোচনি রেজিষ্ট্রার্ড রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই-বল্কের শওকত (১৯), সি-বল্কের বশির আহমেদ(৩২), বি-বল্কের আবুল হোসেন (২২), সি-বল্কের মোঃ হোসেন(২৩), ই-বল্কের বাসিন্দা মোঃ হাসান (২৮),সি-বল্কের আব্দুল গনি(২৪), একই বল্কের জুবায়ের(১৮), ই-বল্কের জিয়াদুল (১২), ও মোঃ ফারুক(৮) সহ সর্বমোট ১৫ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*