,

বিশ্বব্যাপী মসজিদ নির্মাণ ও পরিচালনায় অর্থায়ন বন্ধের ঘোষণা সৌদি আরবের

ডেস্ক নিউজ ::

নিজ দেশের বাইরে মসজিদ নির্মাণ ও পরিচালনায় অর্থায়ন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। দেশটির সাবেক বিচারমন্ত্রী ও মুসলিম ওয়ার্ল্ড লীগের মহাসচীব মোহাম্মদ বিন আব্দুল-করিম ইসা এ ঘোষণা দিয়েছেন। শুক্রবার তিনি জানান, তার দেশ আর বিদেশের মাটিতে মসজিদের জন্য অর্থ ব্যয় করবে না। এ খবর দিয়েছে মিডল ইস্ট মনিটর।

বর্তমানে বিশ্বব্যাপী সৌদি আরব অসংখ্য মসজিদ পরিচালনা করছে। সুইস পত্রিকা লা ম্যাটিন ডিমানচে জানিয়েছে, এখন থেকে সৌদি পরিচালিত মসজিদগুলোকে স্থানীয় কর্তৃপক্ষকেই চালাতে হবে। সৌদি আরব এর দায় তাদেরকে বুঝিয়ে দেবে। সৌদি মন্ত্রী সুইজারল্যান্ডের জেনেভা মসজিদের ব্যাপারেও কথা বলেন।

জানান এই মসজিদকে সুইস কর্তৃপক্ষের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হবে। সেখানে একজন ইমামও নির্বাচন করবে সুইস কর্তৃপক্ষ। এরপরই তিনি জানান, শুধু এই মসজিদ নয়, বিশ্বব্যাপী সৌদি পরিচালিত সকল মসজিদেই অর্থায়ন বন্ধ করবে তার দেশ।

নাৎসি কনসেনট্রেশন ক্যাম্পে মুসলিম নেতাদের ঐতিহাসিক সফর
ইহুদি নেতাদের সঙ্গে ঐতিহাসিক এক সফরে নাৎসি কনসেন্ট্রেশন ক্যাম্প সফর করেছেন আন্তর্জাতিক মুসলিম নেতাদের একটি দল। বৃহ¯পতিবার মুসলিম ওয়ার্ল্ড লিগের মহাসচিব মোহাম্মদ বিন আবদুল কারিম আল-ইসা ও অ্যামেরিকান জিউইশ কমিটির প্রধান নির্বাহী ডেভিড হ্যারিসের নেতৃত্বে বিশ্বের মুসলিম ও ইহুদি নেতাদের একটি দল পোল্যান্ডের নাৎসি কনসেনট্রেশন ক্যাম্প সফর করেছেন। পোল্যান্ডের ওই কনসেনট্রেশন ক্যা¤েপর নাম আউশভিৎস। ১৯৪৫ সালের ২৭ জানুয়ারি কমিউনিস্ট সোভিয়েত ইউনিয়নের রেড আর্মি ক্যাম্পটি হিটলারের বাহিনীর হাত থেকে মুক্ত করেছিলো। এর ৭৫ বছর পুর্তি উপলক্ষে এই সফরের আয়োজন করা হয়।

সৌদি আরবের মক্কার ধর্মীয় নেতা আল-ইসা মুসলমানদের নেতৃত্ব দেন। তিনি সঙ্গে ২৮টি দেশ থেকে আরো ৬১ জন মুসলিম প্রতিনিধি নিয়ে আসেন। এদের ২৫ জন মুসলিম বিশ্বে বেশ সুপরিচিত নেতা। তাঁদের এই সফরকে ‘ঐতিহাসিক’ বলে উল্লেখ করেছে অ্যামেরিকান জিউইশ কমিটি বা এজেসি। ইউরোপীয় ইহুদিদের নিধন চালানো এই ক্যাম্পটিতে মুসলিম ও ইহুদিরা একসঙ্গে প্রার্থনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*