,

মিয়ানমারের জলসীমায় ঢুকে পড়া ৩২ বাংলাদেশি জেলেদের হস্তান্তর

আমান উল্লাহ কবির, টেকনাফ ::

বঙ্গোপসাগরে ইঞ্জিন বিকল হয়ে মিয়ানমারের জলসীমায় ঢুকে পড়া ৩২ বাংলাদেশি জেলেদের ফিশিং ট্রলারসহ বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
২৬ জানুয়ারী রোববার সকাল ৭ টার দিকে টেকনাফের সেন্টমাটিন পূর্ব বঙ্গোপসাগরের উভয় দেশের কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে জেলেদের হস্তান্তর করা হয়।
এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ কোস্টগার্ড টহল জাহাজ বিসিজি এস সৈয়দ নজরুল ইসলামের ক্যাপ্টেন (জিপিএসসি) বিএন মো. হাসান।
জানা যায়, গত ২১ ও ২৫ জানুয়ারি পৃথকভাবে গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকারের সময় বাকলিয়া-১ ট্রলারের ১৯জন এবং এফবি সাজ্জাদ-১ ফিশিং ট্রলারের ১৩জনসহ ৩২জন বাংলাদেশি জেলে ট্রলার বিকল হয়ে সেন্টমার্টিনের অদূরে মিয়ানমার জলসীমায় ঢুকে পড়লে মিয়ানমার নৌবাহিনী তাদের উদ্ধার করে।
টেকনাফ কোস্টগার্ড ষ্টেশন কমান্ডার লে: সালেহ আকরাম বলেন, বাংলাদেশী এফবি বাকলিয়া-১ ও জিন্দাপীর ফিশিং ট্রলার দুটি মাছ শিকারের উদ্দেশে গভীর বঙ্গোপসাগরে যাত্রা করে। উভয় জাহাজ মাছ শিকার অবস্থায় ইঞ্জিন বিকল হয়ে মিয়ানমারের সীমান্তে ঢুকে পড়ে। ভাসমান অবস্থায় মিয়ানমার নৌ বাহিনী দুই ফিশিং ট্রলারের ৩২ জন মাঝি মাল্লাসহ আটক করে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাষ্ট্র পর্যায়ে যোগাযোগ করে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড জাহাজ সৈয়দ নজরুল ইসলাম বাংলাদেশ-মিয়ানমার আন্তর্জাতিক জলসীমার শূণ্য রেখার নিকটবর্তী স্থানে পৌঁছে ৩২ জেলেসহ বাংলাদেশি দুই ফিশিং ট্রলারকে মিয়ানমার নৌ বাহিনী হস্তান্তর করলে তাদের সেন্টমার্টিন দ্বীপের নিকটে নিরাপদে নিয়ে আসা হয়।
এই সময় উপস্থিত ছিলেন, জাহাজ সৈয়দ নজরুল ইসলামের ইলেক্টনিকাল অফিসার লে: কমান্ডার এস এম মামুন উল ইসলাম, সেন্টমাটিন ষ্টেশন কমান্ডার লে: রাহাত ইমতেয়াজ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*