,

‘গরু আনতে গিয়ে সীমান্তে নিহত হলে দায়িত্ব নেবে না সরকার’

ডেস্ক নিউজ ::

ভারতে অনুপ্রবেশ করে গরু আনতে গিয়ে কেউ সীমান্তে নিহত হলে সরকার কোনো দায়িত্ব নেবে না বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

গত ২২ জানুয়ারি খাদ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকা পোরশা সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে তিন বাংলাদেশি নিহত প্রসঙ্গে সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, আমরা গরুর বিট খুলতে দেবো না। এজন্য উপজেলা ও জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটি এবং বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) রেজুলেশন করা হয়েছে। এরপরও কেউ যদি সীমান্তের কাঁটা তারের বেড়া কেটে গরু আনতে গিয়ে গুলিতে মারা যান তার দায়-দায়িত্ব সরকার নেবে না।

এর আগে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে বাঙালিরা স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ে এবং দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে দেশ স্বাধীন করে। ২০৪১ সালের মধ্যে আমাদের যে ভিশন উন্নত রাষ্ট্রে উপনীত হওয়া তা প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বের ফলে ২০৩১ সালের মধ্যেই অর্জিত হবে। দেশে খাদ্য নিরাপত্তা আছে, এখন প্রয়োজন নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা। এ লক্ষ্যেই সরকার কাজ করছে।

তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়ার মূল লক্ষ্য শুধু চাকরি পাওয়া নয়। একজন আদর্শ মানুষ হওয়াটাই বেশি প্রয়োজন। ছেলে-মেয়েদের দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে হবে, তাহলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলা সম্ভব।

তিনি বলেন, অনেক অভিভাবক আছেন যারা ছেলে-মেয়েদের খোঁজ-খবর রাখেন না, এতে তারা বিপথে যেতে পারে। মোবাইল ফোন যাতে ভালো কাজে ব্যবহার হয় সে ব্যাপারেও অভিভাবকদের সচেতন থাকতে পরামর্শ দেন মন্ত্রী। এ সময় স্কুলটির বিভিন্ন উন্নয়নে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাসও তিনি।

অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিসিক এর (অব.) এজিএম আব্দুল লতিফ এর সভাপতিত্বে মূল আলোচক হিসেবে রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আয়েন উদ্দিনসহ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান মোকবুল হোসেন, পবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুনসুর রহমান, পবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন প্রমুখ।

এছাড়া অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়টির সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*