,

টেকনাফে বিজিবির পৃথক অভিযানে ৪৪ হাজার ইয়াবা জব্দ : ফরিদপুরের নারীসহ আটক-২

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফ :
কক্সবাজার টেকনাফে আবারও মাদক কারাবারীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। গত কয়েক দিনে আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে ইয়াবার বিশালাকারের একাধিক চালান ও পাচারকারী আটক হয়েছে। নাফনদী হয়ে মাদক পাচারের অভিযোগে জেলেদের মাছ শিকার বন্ধ থাকলেও বন্ধ হয়নি মাদক পাচার। নিত্য নতুন কৌশলে মাদক পাচারকারী সিন্ডিকেটের সদস্যরা মাদক পাচার কাজ অব্যাহত রেখেছে। সীমান্তে বিজিবির টহল জোরদার থাকলেও টহল দলের পরিবর্তন ও খাবার সুযোগে তারা পাচার কাজ করে থাকে বলে ধারনা স্থানীয় সচেতন মহলের। এরই মাঝে টেকনাফের র‌্যাব-বিজিবির পৃথক অভিযানে এক নারী ও রোহিঙ্গাসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ২ ডিসেম্বর বেলা ১টার দিকে টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেঃ মোহাম্মদ ফয়সাল হাসান খান, পিএসসি সংবাদ সম্মেলনে জানান, বিজিবি’র বিশেষ টহল দল হ্নীলা ইউপিস্থ পশ্চিম সাতঘরিয়া পাড়ার একটি বসত বাড়ীতে ইয়াবা লোকানো রয়েছে এমন সংবাদ পেয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযান কালে ভোর রাত ৩: ৪৫ মিনিটের দিকে বসত বাড়ীর পিছনে একটি সন্দেহ জনক পলিথিনের একটি স্তুপে তল্লাশী করলে পলিথিনে মোড়ানো ৪০ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়। এ সময় বাড়ীর মালিক পশ্চিম সাতঘরিয়া পাড়ার মৃত হোসেন আলীর ছেলে মোঃ আবদুল মজিদ(৩৯) কে আটক করা হয়েছে। এছাড়া হ্নীলা বিকওপির অপর একটি অভিযানে ৩ হাজার ৯শত ৫০টি ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ফরিদপুরের নাগর কান্দার নিখরহাটি গ্রামের মোঃ মনির (লিটন) এর স্ত্রী আছমা বেগম(৩২) কে আটক করা হয়েছে। আটকৃকতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু করে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*