,

টেকনাফ-উখিয়ার ৩০ সাংবাদিক নিয়ে কর্মশালা

আমান উল্লাহ কবির, টেকনাফ  ::

অসহায় ও আর্থিক ভাবে অসচ্ছল প্রান্তিক জনগোষ্ঠির মৌলিক অধিকার বিষয়ে ধারনা দিতে কক্সবাজারের টেকনাফ-উখিয়া উপজেলার ৩০ সাংবাদিকদের নিয়ে ‘ওয়ার্কশপ অন কেইস রেফারেল মেকানিজম’ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
৪ নভেম্বর সোমবার সকাল ১০ টায় উখিয়া উপজেলার ইনানীর রয়েল টিউলিপ মিলনায়তনে জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা ও কক্সবাজার জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির উদ্যোগে এবং ইউএনডিপির সহায়তায় ইউএনডিপির সিটুআর প্রকল্পের ব্যবস্থাপক মাসুদ করিমের সভাপতিত্বে কক্সবাজার লিগ্যাল এইড অফিসার ও সহাকারি জজ মৈত্রী ভট্টাচার্যের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।
এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ পরিচালক (যুগ্ম জেলা জজ) আবেদা সুলতানা (এনএলএসও) ও সহকারী পরিচালক ইয়াসিন হাবিব।
কর্মশালায় জানান, ‘আইনের আশ্রয় লাভের অধিকার’ কে প্রত্যেক নাগরিকের মৌলিক অধিকার হিসেবে ঘোষণা করেছে সরকার। কিন্তু এই অসহায় ও দরিদ্র জন গোষ্ঠির যে কোন ব্যক্তির যখন কোন আইনগত অধিকার ক্ষুণœ হয় তখন প্রতিকার পাওয়ারজন্য তাকে আইন-আদালতের আশ্রয় নিতে হয়। দেশে আইন-আদালতের আশ্রয় নেয়া ব্যয় সাধ্য বিষয় হওয়ায় অনেকেই তাদের আইনগত প্রতিকার পায়না। ফলে লঙ্ঘিত হয় দরিদ্র মানুষের মৌলিক অধিকার।
এই প্রেক্ষাপটে সরকার ২০০০ সালে দরিদ্র মানুষের আইনের আশ্রয় লাভের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য আইনগত সহায়তা প্রদান আইন, ২০০০ প্রণয়ন করে। এই আইনের মাধ্যমে সরকার আইনগত সহায়তা প্রদান কার্যক্রমকে একটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়।
জেলা লিগ্যাল এইড অফিসের আইনি গত সেবার মাধ্যমে দরিদ্র অসহায়, প্রান্তিক, আইন অনুযায়ী উপযুক্ত আবেদন কারীদের বিনা মূল্যে আইনি পরামর্শ দেয়া হয়, বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা হয় এবং আদালতে দায়ের করা মামলায় আইনজীবী নিয়োগ করাসহ মামলার খরচ বহন করা হয়।
সরকারি আইনগত সহায়তা কার্যক্রমের সাথে প্রান্তিক জন গোষ্ঠির সরাসরি যোগাযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে ইউনিয়ন লিগ্যাল এইড কমিটির ভূমিকা বিশেষ ভাবে গুরুত্বপূর্ণ। ওই কমিটি যথাযথ ভাবে গঠন ও পরিচালনা হলে তৃণমূল থেকে আইন সহায়তার আবেদন জেলা লিগ্যাল এইড অফিসে প্রেরণের মাধ্যমে একটি কার্যকর রেফারেল পদ্ধতি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে।
কক্সবাজার জেলায় লিগ্যাল এইডের কার্যক্রম সর্বস্তরে ছড়িয়ে দিতে এনজিও সংস্থা ইউএনডিপি এর সহায়তায় জেলা লিগ্যাল এইড কমিটি নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
এর সুফল হিসেবে ২০১৯ সালের প্রথম ৫ মাসের তুলনায় গত ৫ মাসে বিনা মূল্যে আইন সহায়তার আবেদন ১৮% বৃদ্ধি পায়।
কক্সবাজার জেলা লিগ্যাল এইড অফিস থেকে ২০১৯ সালে ৬৭৭ জন বিনা মূল্যে পরামর্শ, বিরোধ নিষ্পত্তি এবং আইনজীবী নিয়োগসহ আইন গত সেবা প্রদান করা হয়। যা কক্সবাজার আদালতের মামলার আধিক্য কমাতে প্রকারান্তরে ভূমিকা রাখছে।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউএনডিপির ডিস্ট্রিক ফেসিলেটেটর দেওয়ান জিন্নাহ, ন্যাশনাল কনসালটেন্ট মানিক বিশ্বাস, অয়াহিদ হোসেন এবং তনুশ্রী সাহা।
কর্মশালায় উখিয়া এবং টেকনাফ উপজেলার ৩০ জন সাংবাদিকদের অধিকরত কার্যকারী করতে প্রশিক্ষণ দেয়া হয় এবং সাংবাদিকদের ভূমিকা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*