,

কাশ্মীর উত্তেজনার মধ্যেই ভারতে চীনা প্রেসিডেন্ট

ডেস্ক নিউজ :

দুই দিনের বেসরকারি সফরে আজ শুক্রবার দক্ষিণ ভারতের রাজ্য তামিলনাডুর রাজধানী চেন্নাইয়ে এসেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। সেখানে ভারত-চীন অনানুষ্ঠানিক এক সম্মেলনে অংশ নেয়া ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করবেন তিনি।

গত বছরের এপ্রিলে চীনের উহানে প্রতিবেশী ও দক্ষিণ এশিয়ার ক্ষমতাধর এই দুই দেশের নেতা প্রথমবারের মতো বৈঠক করেন। প্রথম বৈঠকের পর চীনের প্রেসিডেন্টকে ভারতে সফরে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।

দুই নেতার বৈঠকের পাশাপাশি বিভিন্ন কর্মসূচিও রয়েছে। দুজনেই চেন্নাইয়ের মহাবলীপুরমের মন্দিরে যাবেন যা বর্তমানে মামল্লাপুরম নামে পরিচিত। তারপর একসঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ এবং নৈশভোজের ফাঁকে দুই রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে অনানুষ্ঠানিক স্তরে কথাবার্তা হবে।

সম্প্রতি বেইজিংয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গেও বৈঠক করেছেন শি জিনপিং । বৈঠকের পর এক বিবৃতিতে চীন জানায়, বেইজিং জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতির দিকে লক্ষ্য রাখছেন। পাকিস্তান কাশ্মীর ইস্যুতে নীতিগত কোনো পদেক্ষপ নিলে পাশে থাকার ঘোষণা দেন তিনি।

পাল্টা উত্তর দিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, আমাদের অবস্থান সম্পর্কে চীন ভালোভাবেই অবগত। অন্য দেশের ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মন্তব্য করা উচিত নয় তাদের। কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর পাকিস্তানের অনুরোধে বিষয়টি জাতিসংঘের নিরাপত্তা ও সাধারণ পরিষদে তুলেছিল চীন।

ভারতে চীনা প্রেসিডেন্টের এটি বেসরকারি সফর হওয়ায় দুই দেশের নেতারা কোনো চুক্তি সই কিংবা যৌথ বিবৃতি দেবেন না। উভয় পক্ষই ভারত-চীন সীমান্ত সমস্যা নিয়ে আলোচনা করে একটি সমাধানে আসার চেষ্টা করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের মধ্যে প্রথম অনানুষ্ঠানিক বৈঠকটি হয়েছিল গত বছর। সীমান্ত লাগায়ো ডোকলামে দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে ৭৩ দিনের উত্তেজনার পর চীনের হ্রদ শহরে বৈঠকে বসেন দুই দেশের শীর্ষ নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*