,

ফ্ল্যাগ বৈঠকে বিজিপি’র চার সদস্যকে হস্তান্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক :

টেকনাফের নাফ নদীর বাংলাদেশের অভ্যন্তর থেকে আটক হওয়া মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষা বাহিনী বিজিপি’র চার সদস্যকে হস্তান্তর করা হয়েছে। স্পীড বোট ও অস্ত্রসহ আটক বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) এর চার সদস্যকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বুধবার ৪ সেপ্টেম্বর বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম সীমান্ত দিয়ে তাদেরকে মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। হস্তান্তরকৃত চারজন বিজিপি সদস্য হচ্ছেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের মংডুর নাগকুড়া ব্যাটালিয়নের মেগচিং ক্যাম্পের ক্যাপ্টেন লি উইন কো ম্যায়েং (৩০), সার্জেন্ট ইয়ানাং তুন (৩১), সার্জেন্ট প্যায়াং গি (২৫) ও সিপাহী ক্য ক্য (২৮)।

ফ্ল্যাগ বৈঠক শেষে গণমাধ্যমকে ব্রিফি করেন-টেকনাফ ২নং বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান। তিনি বলেন, গত ২৫ আগস্ট রাতে নাজিরপাড়া সংলগ্ন নাফ নদীর তীর সীমান্তের বাংলাদেশ জলসীমা থেকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাঘুরির সময় বিজিবির টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়ানের একটি টহল দলের সদস্যরা বিজিপির এই ৪ সদস্যকে স্পীড বোট, অস্ত্রসহ আটক করেছিল। আটকের পর বিষয়টি মিয়ানমার বিজিপি’র উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়। পরে দু’দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর উর্ধ্বতন পর্যায়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে বুধবার নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে বিজিপির এ ৪ সদস্যকে মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর করা হলো। তাদের কাছ থেকে জব্দ করা মালামাল হচ্ছে, একটি এমএ-১১ রাইফেল, ১০টি গুলি, একটি টর্চলাইট এবং ৫ টি মোবাইল ও বিজিপির সদস্যদের বহনকারী একটি স্পিড বোট। বৈঠকে মিয়ানমার বিজিপি’র ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন দেশটির পুলিশের ১ নম্বর সেক্টরের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ক্য উইং। আর বাংলাদেশের ১২ সদস্যের পক্ষে যৌথ নেতৃত্ব দেন-কক্সবাজার ৩৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ, টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান। বৈঠকে উভয় দেশের সীমান্ত সংক্রান্ত আরো বিভিন্ন বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে বলে ব্রফিং এ জানানো হয়েছে।

মতামত...