,

কূটনৈতিক ইস্যু পুনর্বিবেচনা করতে পাকিস্তানের প্রতি ভারতের আহ্বান

ডেস্ক নিউজ :

ভারতীয় হাই কমিশনার অজয় বিসারিয়াকে বহিষ্কার ও দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যিক সম্পর্ক স্থগিত করার একদিন পরেই পাকিস্তানের এমন সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছে ভারত। জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তান এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার পর ভারত বৃহস্পতিবার এ আহ্বান জানিয়েছে। বুধবার পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক কমিটি বৈঠক করে। তারা ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের অবনমন, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য স্থগিত সহ আরো কিছু পদক্ষেপ নেয়। এছাড়া কমিটি পাকিস্তানের সেনাবাহিনীকে সতর্ক অবস্থায় থাকার নির্দেশনা দেয়।

এরই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতি দিয়েছে। তাতে জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুকে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে উল্লেখ করে ভারত। পাকিস্তানের গৃহীত পদক্ষেপের দিকে ইঙ্গিত করে এতে বলা হয়, এসব পদক্ষেপ অবশ্যই বিশ্বের কাছে আমাদের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিষয়ে একটি উদ্বেগজনক চিত্র তুলে ধরে। পাকিস্তান যেসব তথ্যের ভিত্তিতে এসব পদক্ষেপ নিয়েছে তা বাস্তবতাকে সমর্থন করে না।

সম্প্রতি সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করার বিষয়টি পুরোপুরিভাবে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। ভারতের সংবিধান সব সময়ই সার্বভৌম বিষয় ছিল, আছে এবং থাকবে। এ খবর দিয়েছে পাকিস্তানের অনলাইন ডন ও ভারতের অনলাইন জি নিউজ। 

জি নিউজ লিখেছে, কূটনৈতিক সম্পর্কের অবনমনের সিদ্ধান্ত পর্যালোচনার জন্য পাকিস্তানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ভারত। কঠোর ভাষায় এ বিষয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার একটি বিবৃতি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, আমরা এই মর্মে রিপোর্ট দেখতে পেয়েছি যে, ভারতের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিষয়ে পাকিস্তান সুনির্দিষ্টভাবে একতরফা কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সংবিধানের অস্থায়ী একটি ধারার কারণে জম্মু ও কাশ্মীরে উন্নয়ন করা যাচ্ছিল না। জম্মু ও কাশ্মীরে উন্নয়ন সুবিধা বৃদ্ধির জন্য প্রতিশ্রুতির প্রেক্ষিতে সরকার ও ভারতের পার্লামেন্ট সম্প্রতি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে লিঙ্গ ও সামাজিক-অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বৈষম্য দূর হবে। অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বৃদ্ধি পাবে। জম্মু ও কাশ্মীরে বসবাসকারী সব মানুষের জীবনমানের উন্নতি ঘটবে।

বুধবার ভারতের হাই কমিশনার অজয় বিসারিয়াকে বহিষ্কার করে পাকিস্তান। দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য স্থগিত ঘোষণা করে। একই সঙ্গে ভারতে নিযুক্ত পাকিস্তানের নতুন হাই কমিশনার ভারতে আসছেন না। এছাড়া পাকিস্তান তার আকাশসীমা ব্যবহারের সময় আংশিকভাবে বন্ধ করে দিয়েছে। ফ্লাইট কতটা উপরে উঠতে পারবে তার সীমা বৃদ্ধি করেছে। 

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এমন উন্নয়ন পদক্ষেপÑ যা জম্মু ও কাশ্মীরে অসন্তোষ চিহ্নিত করবে, আর তা পাকিস্তানের নেতিবাচকভাবে নেয়া উচিত হবে। এটা বিস্ময়ের ব্যাপার নয়। এতে আরো বলা হয়, বুধবার পাকিস্তান যে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে তাতে অনুতাপ প্রকাশ করছে ভারত। পাশাপাশি পাকিস্তানের কাছে ভারত আহ্বান জানায় তাদের সিদ্ধান্ত পর্যালোচনা করতে, যাতে কূটনীতির স্বাভাবিক চ্যানেল সুরক্ষিত থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*