,

টেকনাফে বন্দুক যুদ্ধে রোহিঙ্গাসহ দু’মাদক কারবারী নিহত : আহত-৪


মুহাম্মদ জুবাইর:
কক্সবাজার টেকনাফে বিজিব সাথে মাদক পাচারকারী দলের গুলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। ৫ আগষ্ট ( সোমবার) এ ঘটনাটি ঘটে। রোহিঙ্গাসহ দুই মাদক পাচারকারী গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে নিহত হয়েছে। এসময় ৪জন বিজিবি জওয়ান আহত হলেও ঘটনাস্থল হতে অস্ত্র, ইয়াবা ও কিরিচ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতরা মাদক পাচারকারী বলে দাবী করে বিজিবি। নিহতরা হচ্ছে, হোয়ইক্যং সাতঘরিয়া পাড়ার, মৃত জলিল আহমদের পুত্র মো. দিলদার হোসেন দিলু(৩০) ও উখিয়া কুতুপালং ক্যাম্পের ব্লক-এ-২, জি ক্যম্প-০২ এর বসিন্দা মৃত হায়দার শরীফের পুত্র মো. নুরুল ইসলাম (২৭)।
টেকনাফ ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এর উপ-অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার জানান, হ্নীলা ইউনিয়নের মৌলভী পাড়া ২নঙ ¯œুইচ গেট হয়ে মিয়ানমার থেকে বিশালাকারের একটি মাদকের চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। উক্ত সংবাদে খারাংখালী বিওপির একটি বিশেষ টহল দল সেখানে গিয়ে অবস্থান করে। এক পর্যায়ে ভোরারাত সাড়ে ৩টার দিকে ৪/৫জন লোক স্বশস্ত্র ইয়াবা ব্যবসায়ী জড়ো হয়ে ইয়াবা হস্তান্তরের চেষ্ঠা চালায়। তখন বিজিবির উপস্থিতি ঠের পেয়ে বিজিবি টহল দলের উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা করে, গুলিবর্ষণ করে। ৪বিজিবি সদস্য আহত হয়। আত্বরক্ষাথে বিজিবিও পাল্টাগুলি চালায়। প্রায় কয়েক মিনিট গুলাগুলির পর পরিস্থিতি শান্ত হলে আশপাশে তল্লাশী করলে ২০ হাজার ইয়াবা, ২টি দেশীয় তৈরী অস্ত্র, ৪রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ২টি ধারালো কিরচিসহ ২জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে যায়। গুরুত্বর আহত হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার হাসপাতালে প্রেরন করে। সেখানে কর্মরত কিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন। এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।###

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*