,

হ্নীলা ইউপি উপ-নির্বাচনে প্রতীক পেয়ে প্রচারণা শুরু

হুমায়ূন রশিদ :

নির্বাচন কর্তৃক ঘোষিত টেকনাফে উপনির্বাচনে হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান পদে ৩জন ও সাবরাং সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড মেম্বার পদে ৩জনসহ মোট ৬জনকে প্রতীক বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। প্রতীক পেয়ে জয়ের আশা নিয়ে প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীরা স্ব স্ব নির্বাচনী এলাকায় আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেছে।

১০জুলাই সকালে টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন অফিসার বেদারুল ইসলামের কার্যালয়ে ২নং হ্নীলা ইউপি উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দি চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্ধ দেওয়া হয়। আওয়ামী লীগ মনোনীত রাশেদ মাহমুদ আলী (নৌকা), প্রয়াত চেয়ারম্যান মাষ্টার মীর কাশেমের পুত্র মীর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম (মোটর সাইকেল) ও সাবেক চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন চৌধুরী (আনারস) প্রতীক পেয়েছে। এছাড়া ৪নং সাবরাং ইউপির (১,২ ও ৩নং) সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ওয়ার্ডে শাহিনা রহমান বি এ, (মাইক), ছেনোয়ারা বেগম (সূর্য্যমুখী ফুল) ও আমেনা খাতুন (হেলিকপ্টার) প্রতীক পেয়ে স্ব-স্ব এলাকায় আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু করেছেন।

এই ব্যাপারে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন,অত্র ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এইচকে আনোয়ার চলতি বছরের গত ১৮মার্চ সাবরাংয়ে নৌকার মার্কার জনসভায় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে যাওয়ার পথে মৃত্যুবরণ করে। পরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান পদ শূন্য ঘোষণা দিয়ে উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন। দলীয়ভাবে আমাকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দেওয়ায় আমি চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছি। আওয়ামী লীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগ,ওলামা লীগ,স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ অন্যান্য অঙ্গ-সংগঠন সমন্বিতভাবে কাজ করলে ইনশল্লাহ আগামী ২৫জুলাই জনগণের রায়ে নৌকা প্রতীককে জয়ী করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে পারবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এতেই অত্র ইউনিয়নের মরহুম এইচকে আনোয়ারের অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করতে সক্ষম হবে বলে দাবী করেন।

সাবেক চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন চৌধুরী বলেন,আমি দীর্ঘদিন ধরে অত্র ইউনিয়নের জনগণের সেবায় নিয়োজিত ছিলাম। তারাই আমার সম্পর্কে ভালো জানেন। অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হলে ইনশল্লাহ জনগণের রায়ে আমি বিজয়ী হব বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

মীর মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন,নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে যার ভোটাধিকার সে প্রয়োগ করতে পারলে ইনশল্লাহ আমি জয়ী হব বলে মত প্রকাশ করেন।

সাবরাং ইউপির (১,২ও ৩নং) সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ওয়ার্ডের প্রতিদ্বন্দি আমেনা খাতুন (হেলিকপ্টার) বলেন, ২০১৮ইং সালের ১৮ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১১টায় টেকনাফ উপজেলা পরিষদ এলাকায় হার্টস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে তারই বোন আয়েশা বেগম ইন্তেকাল করেন। তাঁরই অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজ করার জন্য তিনি এই ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মেম্বার পদে প্রার্থী হয়েছে। এই ব্যাপারে তিনি সকল ভোটারের দোয়া ও সমর্থন কামনা করেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১৮ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১১টায় টেকনাফ উপজেলা পরিষদ এলাকায় হার্টস্ট্রোক হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সাবরাং ইউনিয়নের (১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের) সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার আয়েশা বেগম ইন্তেকাল করেন। অপরদিকে চলতি বছরের গত ১৮ মার্চ সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সাবরাং বাজারে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখার পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার যাওয়ার পথে হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান এইচকে আনোয়ার মৃত্যু বরণ করেন। স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ বিধিমালা অনুযায়ী কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন গত ২৪ এপ্রিল ১২৪ নম্বর স্মারকমূলে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগে চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষণার জন্য পত্র প্রেরণ করেন। স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদ-১ শাখার উপসচিব মোঃ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত ১৫.২১৩ নম্বর স্মারকে চলতি বছরের গত ১০জুন জারীকৃত এক আদেশে ২০০৯ সালের ইউনিয়ন পরিষদ আইনের ৩৩ (৩) ধারা অনুযায়ী হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের পদটি শূন্য ঘোষনা করেন। চলতি বছরের গত ১৭জুন স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) নির্বাচন বিধিমালা অনুযায়ী হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান ও সাবরাং ১নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার পদে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। তফসিল অনুযায়ী গত৩০ জুন রিটার্নিং অফিসারের নিকট মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিন। ২ জুলাই রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক মনোনয়ন পত্র বাছাই ও ৯ জুলাই প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল। এতে হ্নীলা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে সিরাজুল ইসলাম সিকদার ও হারুন অর রশিদ মনোনয়ন প্রত্যাহার করে। ১০জুলাই প্রতীক বরাদ্ধ দেওয়া হয়। প্রতীক পেয়েই জয়ের আশা নিয়ে প্রার্থীরা প্রচারণা, গণসংযোগ ও স্বাক্ষাত শুরু করেন।

মতামত...