,

হ্নীলায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পূর্বের নিয়মে রেশন বিতরণ না করায় উত্তেজনা !

ফরিদুল আলম : হ্নীলাস্থ লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগের নিয়ম না মেনে নতুন নিয়মে রেশন বিতরণ করায় গত ১সপ্তাহধরে রেশন গ্রহণ বন্ধ করেছে রোহিঙ্গারা। এই বিষয়ে উত্তেজিত রোহিঙ্গারা এর প্রতিকার চেয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করেছে।

৮ জুলাই সোমবার দুপুরে উক্ত ক্যাম্পের সাইর মোহাম্মদের স্ত্রী জুহুরা বেগম, আহমদের স্ত্রী সাজেদা বেগম, আরিফ উল্লার স্ত্রী আনোয়ার বেগম, রহিম উল্লার স্ত্রী হাসিনা বেগমের নেতৃত্বে একদল রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ নতুন রেশন প্রথা বাতিলের দাবী জানিয়ে উত্তেজিত রোহিঙ্গারা খাদ্য গুদামের সামনে গিয়ে বিক্ষোভ করে। পরে মিছিল-সমাবেশ করার চেষ্টা করলে বস্তির চেয়ারম্যান মোঃ আলম তাদের থামিয়ে নতুন রেশন বিতরণ পদ্ধতি দ্রæত বাতিলের দাবী জানিয়ে এসিএফের প্রজেক্ট অফিসার বরাবরে আবেদন করেন।

এদিকে রোহিঙ্গারা আরো জানান,বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর আওতায় হাঙ্গার প্রজেক্ট (এসিএফ) প্রতিজন রোহিঙ্গাকে ৭শ ৭০টাকা করে রেশন বাবদ টাকা দিয়ে আসলে। ফলে সাধারণ রোহিঙ্গারা তাদের পছন্দ মতো খাবার কিনে খেত। এতেই সাধারণ রোহিঙ্গারা সন্তুষ্ট ছিল বলে রোহিঙ্গা নেতারা দাবী করেন। কিন্তু রেশন বিতরণকারী সংস্থা গত ১লা জুলাই হতে নির্দিষ্ট একটি দোকান হতে ৪৫০ টাকার চাউল ও ৩২০টাকার অন্যান্য পণ্য কিনতে বলে। এতে সাধারণ রোহিঙ্গা ক্ষুদ্ধ হয়ে গত ১ সপ্তাহ ধরে রেশন নেওয়া বন্ধ করে দেয়। এরফলে অনেক রোহিঙ্গা অনাহার-অর্ধাহারে থেকে চরম ভোগান্তিতে পড়ে। অবশেষে রোহিঙ্গারা ক্ষুদ্ধ হয়ে ত্রাণ বিতরণকারী সংস্থার নতুন নিয়ম বাতিলের দাবীতে উত্তেজিত হয়ে এই জাতীয় ঘটনার আশ্রয় নেয়।

এই ব্যাপারে লেদা এল.এম.এস রোহিঙ্গা ক্যাম্প চেয়ারম্যান মোঃ আলম বলেন, রেশন সংক্রান্ত বিষয়ে রোহিঙ্গারা উত্তেজিত হয়ে উঠলে আমি তাদের থামিয়ে দিই। এরপর পূর্বের নিয়মে রেশন বিতরণের আহবান জানিয়ে আবেদন করেছি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*