,

জাভেদ মিঁয়াদাদের ২৭ বছর আগের রেকর্ড ভেঙে দিলেন বাবর

স্পোর্টস ডেস্ক :::

সেমিফাইনালে যাওয়ার প্রায় অসম্ভব পথ পাড়ি দিতে আজ (শুক্রবার) লর্ডসে বাংলাদেশের মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান। তবে ম্যাচ জয়ের আগে টস জয়টাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিল তাদের কাছে। এক্ষেত্রে পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ বেশ ভাগ্যবান ভাবতে পারেন নিজেকে।

টস জিতে আগে ব্যাট করবে পাকিস্তান, সেটা অনুমিতই ছিল। আর এটাই হয়েছে। সমীকরণ মিলিয়ে ম্যাচ জয়ের প্রায় অসম্ভব লক্ষ্যকে বাঁচিয়ে রাখতে হলেও কমপক্ষে ৩১১ রান করতে হবে পাকিস্তানকে। তা না হলে, বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ে নামার আগেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাবে সরফরাজদের।

পাকিস্তানের মনের মধ্যে সেই লক্ষ্যটা এখনও আছে কি না, কে জানে! তবে বাংলাদেশের বোলারদের সামলে ঠিকই বড় সংগ্রহের পথে এগুচ্ছে দলটি।

দলকে এগিয়ে দেয়ার পথে বাবর আজম তো ছিলেন একেবারে সেঞ্চুরির দোরগোড়ায়। ৯৬ রানের মাথায় তাকে সাজঘরের পথ দেখান মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন।

সেঞ্চুরিটা পাওয়া হয়নি, তবে তার আগেই অনন্য এক রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন বাবর আজম। পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান জাভেদ মিঁয়াদাদকে ছাড়িয়ে দেশের হয়ে বিশ্বকাপের এক আসরে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহের রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

মিঁয়াদাদ রেকর্ডটি গড়েছিলেন ১৯৯২ বিশ্বকাপে। পাকিস্তানকে চ্যাম্পিয়ন করার সে আসরে দলের হয়ে ৯ ম্যাচে ৪৩৭ রান করেছিলেন তিনি। যেটি এতদিন পর্যন্ত ছিল পাকিস্তানের হয়ে এক আসরে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড।

২৭ বছর পর সেই রেকর্ডটি ভেঙে দিলেন বাবর আজম, যিনি আবার পাকিস্তানের হয়ে এবারই প্রথম বিশ্বকাপ খেলছেন। ম্যাচে নামার আগে রেকর্ড থেকে ৫৯ রান দূরে ছিলেন বাবর। শেষ পর্যন্ত এ বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচ খেলে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান করলেন ৪৭৪ রান।

মতামত...