,

টাকা না পেয়ে মামলা করলেন শচিন

ডেস্ক নিউজ ::

সর্বকালের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান তিনি। ক্রিকেটের বাইশ গজের ব্যাট হাতে প্রায় সব রেকর্ডই শচিন টেন্ডুলকারের দখলে। ইতিহাসের একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি করার অনন্য কৃতিত্বও দেখিয়েছেন। টেস্ট ও ওয়ানডে দুই ফরম্যাটেই সর্বোচ্চ রানের মালিকও ভারতীয় এই ব্যাটিং কিংবদন্তি।

শচিনের এই জশ-খ্যাতি ব্যবহার করে ব্যবসা করছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রীড়া প্রতিষ্ঠান ‘স্পার্টান স্পোর্টস’। তারা নিজেদের ক্রীড়া সামগ্রী এবং পোশাকে ভারতীয় কিংবদন্তির নাম, ছবি ব্যবহার করে বিক্রি করছে ‘শচিন বাই স্পার্টান’ নামে। এজন্য অবশ্য স্বত্ত্ব নিয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি।

২০১৬ সালে চুক্তি হয়েছিল ব্যবসায় নাম, ছবি, লোগো ব্যবহারের বিনিময়ে শচিনকে বছরে ১ মিলিয়ন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় সাড়ে আট কোটি) করে দেবে স্পার্টান। কিন্তু এখন পর্যন্ত তারা টাকা দেয়নি। বাধ্য হয়েই আদালতের দ্বারস্থ হলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক।

শচিন জানিয়েছেন, পাওনা পরিশোধের জন্য ২০১৮ সালে স্পার্টানের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধ করেন তিনি। সেটা না করতে পারলে যেন তার নাম, ছবি, লোগো ব্যবহার করা না হয়। তারপরও স্পার্টান নিজেদের কাজ আগের মতোই করে যাচ্ছে। তাই এবার এই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ২ মিলিয়ন ডলারের (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৭ কোটি টাকা) ক্ষতিপূরণ মামলা করেছেন ভারতীয় কিংবদন্তি। 

স্পার্টান ছাড়াও আরো বেশ কয়েকটি বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত আছেন শচিন। এডিটাস, বিএমডব্লিউ, এমআরএফের মতো প্রতিষ্ঠানের শুভেচ্ছাদূত তিনি। অবসরের পরও ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে বিরাট কোহলি ও মহেন্দ্র সিং ধোনির পর শুভেচ্ছাদূত হিসেবে তৃতীয় সর্বোচ্চ আয় করেন শচিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*