,

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-১

নিজস্ব প্রতিবেদক:

টেকনাফে পুলিশের হাতে আটক মুফিজুর রহমান কথিত বন্দুক যুদ্ধের ঘটনায় নিহত হয়েছে। পুলিশের দাবী ঘটনার সময় ৩জন পুলিশ সদস্য আহত ও ঘটনাস্থল হতে অস্ত্র, ইয়াবা ও বুলেটসহ গুলিবিদ্ধ মুফিজকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই মৃত্যুবরণ করে ।
পুলিশ সুত্রে জানা যায়, ৩জুন রাতের প্রথম প্রহরে পুলিশের হাতে আটক উপজেলার হোয়াইক্যং কাটাখালীর সাবেক মেম্বার গোলাম আকবরের পুত্র মুফিজুর রহমান প্রকাশ মফিজ (৪১) কে নিয়ে কাটাখালী এলাকায় মাদক অভিযানে যায়। এসময় মাদককারবারীদের সাথে পুলিশের গুলিবিনিময় হয়।

গুলাগুলিতে হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত এএসআই ওয়াহেদ,কনস্টেবল মনির হোসেন ও রুবেল মিয়া আহত হয়। পুলিশও সরকারী সম্পত্তি এবং আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলিবর্ষণ করে। কিছুক্ষণ পর হামলাকারীরা পিছু হঠলে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ৪টি অস্ত্র, ১৩রাউন্ড বুলেট ও ৩হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। আহত পুলিশ সদস্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মুফিজকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার রেফার করা হয়। কক্সবাজার হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এই ব্যাপারে তদন্ত স্বাপেক্ষে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

মতামত...