,

রোহিঙ্গা নারী বিয়ে, বাংলাদেশীকে ১ মাসের কারাদণ্ড

হাসান তারেক মুকিম, রামু:
রামুতে রোহিঙ্গা নারীকে নিয়ে অবৈধভাবে বসবাস করার অভিযোগে জাগির হোসেন (৩৫) নামের এক বাংলাদেশীকে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।
শনিবার (১ জুন) বিকালে এ সাজা প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রণয় চাকমা।
সাজাপ্রাপ্ত জাগির হোসেন হলদিয়া ২নং ওয়ার্ড়ের হালুকিয়া এলাকার ছৈয়দুল্লাহর পুত্র।
রোহিঙ্গা নারী জানোয়ারা (ঝানু)কে শরণার্থী ক্যাম্পে পাঠানো হয়েছে। সে উখিয়া মধুরছড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি ব্লক (২৮-এস) এর বাসিন্দা মো. ইউনুচের মেয়ে।
স্থানীয়রা জানিয়েছে, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের পাহাড় পাড়া এলাকার হাকিম মিয়ার বাড়িতে স্বামী স্ত্রী সেজে অবৈধভাবে বসবাস করে আসছিল। পরে বিষটি স্থানীয়দের মাঝে জানাজানি হলে এলাকার জনসাধারন কাউয়ারখোপ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ ও রামু উপজেলায় কর্মরত এনএসআই মোঃ হানিফের শরণাপন্ন হয়। পরবর্তীতে ১ মে বিকাল ৩ টায় চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ ও এনএসআই মোঃ হানিফ দম্পতিকে আটক করে রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে হস্তান্তর করলে সাজা প্রদান করা হয়।
কাউয়ারখোপ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ ও এনএস আই হানিফ জানান, রোহিঙ্গা নারী জানোয়ারা তার পরিবারের সাথে বিগত ১৫ মাস পূর্বে বার্মা থেকে বাংলাদেশে আসে। তার পিতার নাম, মোঃ ইউনুচ। সে তার পরিবাবের সাথে উখিয়ার মধুছড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প সি ব্লক ২৮ এস বসবাস করত। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাংলাদেশী নাগরিক জাগির হোসেন ক্যাম্প থেকে উক্ত মহিলাকে নিয়ে আসে। সে কাউয়ারখোপের বিভিন্ন ইটভাটায় পরিবহন শ্রমিকের কাজ করত বলে জানান।

মতামত...