,

জেলা বিএনপির অর্থ-সম্পাদক মোঃ আব্দুল্লাহ ২টি মিথ্যা মামলা থেকে খালাস পেলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : কক্সবাজার জেলা বিএনপির অর্থ সম্পাদক ও টেকনাফ উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মোঃ আব্দুল্লাহ ২ মামলা থেকে বেখসুর খালাশ পেয়েছেন।
জানা যায়,টেকনাফ সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আলী আহাম্মদের সুযোগ্য পুত্র আব্দুল্লাহ দীর্ঘদিন যাবত টেকনাফ উপজেলা বিএনপির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ২টি মামলায় খালাশ পাওয়া বিএনপি নেতা আব্দুল্লাহ বলেন, ২০০৮ সালে সরকার পরিবর্তন হওয়ার কিছু দিন যেতে না যেতেই আমার ৭ বছরের শিশু আলী উল্লাহ আলোকে নির্মম ভাবে জবাই করে হত্যা করে নর-পশুরা।

পাশাপাশি বিগত কয়েক বছরের ব্যবধানে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের লোকেরা বাদী হয়ে আমিসহ আমার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা সাজানো মামলা রুজু করতে থাকে। টেকনাফ মডেল থানায় মোট ৪২টির মত মামলা রুজু করা হয় আমার পরিবার ও রাজনৈতিক সহপাটিদের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন ইনশআল্লাহ সাধারন মানুষের দোয়া ও ভালবাসা বুকে নিয়ে আমি আইনী প্রক্রিয়ায় এই সমস্ত মামলা থেকে একের এক জামিন লাভ করি।
কিন্তু এই মামলা গুলোর হাজিরা দিতে আমাকে প্রতিমাসে ৪ বার করে আদালতে যেতে হয়। অবশেষে দীর্ঘ কয়েক বছর পর ৩০মে বৃহস্পতিবার ২টি মামলা থেকে বেখসুর খালাশ পেয়েছি। এর মধ্যে একটি চাঁদাবাজি ও একটি রাজনৈতিক মিথ্যা মামলা। এই ২টি মামলায় মহামান্য আদালত আমাকে এবং আমার সাথে থাকা অপরাপর আসামীদেরকে বেখসুর খালাশ প্রদান করেছে। এর আগেও আরো ২/৩টি মামলা থেকে খালাশ পেয়েছি। এব্যাপারে অভিমত প্রকাশ করে বিএনপি নেতা আব্দুল্লাহ আরো বলেন, আমি কোনদিন কোন অপরাধে জড়িত ছিলাম না প্রিয় টেকনাফবাসীর কাছে আমার এবং আমার পরিবারের অনেক সুনাম রয়েছে। পাশাপাশি বিগত উপজেলা নির্বাচনে আমি উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ছিলাম। আমাকে নির্বাচিত করার জন্য অত্র উপজেলার জনগন দুই দুইবার বিপুল পরিমান ভোট প্রদান করেছিল। কিছু অপশক্তির কাছে বার বার আমি পরাজিত হয়েছি।

পরিশেষে আমি সবার কাছে দোয়া চাই,টেকনাফের সাধারন জনগন আমার পাশে থাকলে অপশক্তি গ্রুপের সদস্যরা আমার কোন ক্ষতি করতে পারবে না।

মতামত...