,

টেকনাফ পৌরসভার অলিয়াবাদ সড়কের বেহাল দশা


শামসু উদ্দিন,টেকনাফ:
টেকনাফ পৌরসভার অভ্যন্তরীন ৫নং ওয়ার্ডের অলিয়াবাদ সড়কের বেহাল দশা। ঝরাঝীর্ণ সড়কগুলোতে জনসাধারনের যাতায়াত দূর্বিসহ হয়ে উঠেছে। সড়কের বিভিন্ন অংশ ভেঙে গেছে। একটু বৃষ্টিতেই সেখানে কাদা হয়ে চাষাবাদ জমির মতো হয়ে উঠে।
এ অবস্থায় এলাকাবাসীদের মাঝে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পৌরসভার শাপলা চত্বর হয়ে অলিয়াবাদ ও গোদার বিল যাতায়াতের রাস্তা যেন ডুবন্ত সড়ক। এ সড়কগুলো সংস্কারের জোর দাবি জানিয়ে আসছিল। কয়েক বছর পূর্বে পাকা সড়ক নির্মান হলেও কিছুদিনের মধ্যেই সড়কের বিভিন্ন অংশ ভেঙে গিয়ে ছোট বড় অসংখ্য খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। ওই সড়কসমূহে স্কুল, কলেজ মাদরাসার শিক্ষার্থীও সর্বসাধারনসহ যানবাহন চলাচল একেবারে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সড়কটি বর্তমানে মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। সরকারের বিপুল অর্থ ব্যয় নির্মিত সড়কটি জনগণের কোনো কাজেই আসছে না। পাকা করা সড়কের কার্পেটিং সরে গেয়ে ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এ সড়কে ছোট বড় যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে গর্তে আটকে গিয়ে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে। এতে এ অব্যন্তরীন সড়কে চলাচলরত যানবাহন ও পথচারীদের জান-মালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হচ্ছে। অলিয়াবাদ এলাকার প্রবীণ মুরব্বী কাসেম মেম্বার, আবদুর রহমান ও মোহাম্মদ হোছাইনাসহ ভুক্তভোগীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দেশে উন্নয়নের জোয়ার বইলেও অলিয়াবাদের অভ্যন্তরীন সড়কগুলো বরাবরই অবহেলিত রয়ে গেছে। এসব সড়কের উন্নয়নে তেমন কোনো কার্যকর পদক্ষেপ দেখা যাচ্ছেনা। তারা বলেন, বছরের পর বছর ধরে সড়কের কাজই চলে। তারপররও অভ্যন্তরীন সড়ক সমূহের উন্নয়ন চোখে পড়েনি। এ দায়ভার কে নেবে? তারা আরও বলেন, সড়কের অভাবে প্রতিদিনি স্কুল,কলেজ ও মাদরাসায় যাতায়াতে শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

মতামত...