,

‘আমাদের সময় শেষ হয়ে আসছে’

ডেস্ক নিউজ :

নিজের রাজনীতির জীবনের কথা উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমি সুস্থ নই। তারপর আমার মাঝে মাঝে মনে হয়, আমাদের সময় তো শেষ হয়ে আসছে।
শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ন্যাশনালিস্ট রিসার্চ সেন্টার আয়োজিত এক আলোকচিত্র প্রর্দশনী ও আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
‘সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনীতিতে আগমন, বিএনপি চেয়ারপারসন হিসেবে দায়িত্ব পালনের ৩ যুগ্ম পূর্তি’ উপলক্ষে এ আলোকচিত্র প্রর্দশনী অনুষ্ঠিত হয়।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমি সুস্থ নই। তারপর আমার মাঝে মাঝে মনে হয়, আমাদের সময় তো শেষ হয়ে আসছে। এখন যারা সামনে আসবেন। এই বাংলাদেশের শুধু রাজনীতি নয়, এই বাংলাদেশকে বাঁচাতে তাদেরকে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশের অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে পড়েছে। বাংলাদেশে স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব থাকবে কি থাকবে না, বাংলাদেশ নিজস্ব মর্যাদায় দাঁড়িয়ে থাকতে পারবে কি পারবে না এবং বাংলাদেশ নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে থাকতে পারবে কি পারবে না- আজকে সেই প্রশ্ন এসে দাঁড়িয়েছে।

কারণ অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশকে একটা অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, তরুণ ও যুবকদের প্রতি আমার অনুরোধ, আপনারা বেগম জিয়া ও শহীদ জিয়ার যে আর্দশ, চিন্তা এবং রাজনীতির ধারা- তা ছড়িয়ে দেন। আমাদের তো বয়স হয়ে গেছে। এখানে যারা আছি, আমরা দীর্ঘকাল ধরে কাজ করছি। তাই আমাদের বয়স হয়েছে এবং আমরা বৃদ্ধ হয়েছি। আর এখন আপনাদের সময়। আপনারা এগুলো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল আরো বলেন, আমাদেরকে লড়তে এবং সংগ্রাম করতে হবে। হতাশ হলে চলবে না। আমাদেরকে প্রতিটি সুযোগ নিতে হবে। আমাদেরকে পথ বের করতে হবে। কিন্তু এটা সহজ কাজ নয়। কঠিন কাজ। কারণ বিভিন্নভাবে বিএনপি ও দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্ত সৃষ্টি করা হচ্ছে। তবে আপনারা বিভ্রান্ত হবেন না। কারণ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডন থেকে দল পরিচালনায় করছেন। আর তার নির্দেশে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে সঠিক রাজনীতির দিকে নিয়ে যাবো।

এনআরসি’র পরিচালক বাবুল তালুকদারের সভাপতিত্বে ও ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটোয়ারীর সঞ্চালনায় সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মতামত...