,

সংবাদ প্রকাশের পর টেকনাফে মেলায় আগুনে পুড়লো ড্র’র টিকেট ও জুয়ার সরাঞ্জামাদি

মুহাম্মদ জুবাইর/ শামসু উদ্দীন, টেকনাফ::

আলো নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকমে সংবাদপ্রকাশের পর টেকনাফ বস্ত্র হস্ত ও শিল্প মেলায় প্রশাসনের হানা দিয়েছে। এঘটনায় আগুনে পুড়লো ড্র’র টিকেট ও জুয়ার সরাঞ্জামাদি। অবশেষে বন্ধ হলো মেলা মাঠের লটারীও জুয়ার আসর। স্থানীয় জনসাধারনকে লোভনীয় অফারের ফাঁদে ফেলে র‌্যাফেল ড্র’র নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অপকৌশল ও জুয়ার আসর চলছিল টেকনাফের বস্ত্র হস্ত ও শিল্প মেলায়।
২৫ এপ্রিল ( বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় মেলাস্থলে অভিযান পরিচালনা করেন নবনিযুক্ত টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মো. আবুল মনসুর ও টেকনাফ মডেল থানার এক দল পুলিশ।
অভিযান শেষে তিনি জানান, বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমও স্থানীয় জনসাধারণের অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাফেল ড্র ও টিকিট বিক্রি সম্পূর্ণরুপ নিষেধ করে লটারী বিক্রির টিকিটে, মুন্ডা ও জুয়ার আসরের সরঞ্জামাদি আগুনে পুড়ে ফেলার পর লটারি ও জুয়ার কিছু সরঞ্জামাদি জব্দ করে।
এরপরও র‌্যাফেল ড্র’র টিকিট বিক্রি, জুয়ার আসর বসানো হলে আটকসহ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান। দেরীতে হলেও অভিযানে পারিচালনা করায় টেকনাফের স্থানীয় জনসাধারন সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। এছাড়া চলমান এইচএসসি সমমান পরীক্ষার্থীর অভিবাবকগন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে মহান আল্লাহর দরবারে শুকরিয়া আদায় করেছেন।
এরআগে ২৪ এপ্রিল আলো নিউজ ২৪ ডটকমসহ একাধিক পত্রিকা ও অনলাইনে টেকনাফে বস্ত্র হস্ত ও শিল্প মেলায় র‌্যাফেল ড্র’র নামে জুয়া আসর ও বখাটের আড্ডা এবং এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফলাফল বিপর্যয়ের শঙ্কা শীর্ষক একাধিক শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হলে প্রশাসনের টনক নড়ে।
উপজেলা প্রশাসন সরেজমিনে গিয়ে নিউজের সত্যতার প্রমান পেয়ে মেলায় র‌্যাফেল ড্র’র টিকিট বিক্রি ও জুয়ার আসর বন্ধ করে দেয়।
গত ৫ এপ্রিল টেকনাফ বাস টার্মিনাল মাঠে বস্ত্র হস্ত ও শিল্প মেলার উদ্বোধন করা হয়। শুরুতে লটারি না থাকলেও নাচ,গাণ জুয়ার অভিযোগ উঠে আসছিল। কিন্তু কয়েকদিন মেলা চলার পর দৈনিক মায়ের দোয়া নাম দিয়ে লটারির টিকেট বিক্রি ও প্রকাশ্য জুয়ার আসর বসায়। এসব কারনে স্থানীয় আলেম ওলামা, সাধরন জনতা ক্ষেপে উঠে আন্দোলনের ডাক দেয়।
টেকনাফ বাস টার্মিনাল মাঠে লটারি বানিজ্যের নামে প্রকাশ্যে জুয়ার আসর বন্ধে স্থানীয় আলেম ওলামারা বাঁধ সাজে। মেলার নামে অনৈসলামিক কর্মকান্ড বন্ধে উপজেলা প্রশাসন ও পৌর মেয়রের দপ্তরে পৃথকভাবে স্বারক লিপি প্রদান করে। এতকিছুর পরও মেলা কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজ করে বীরদর্পে একাজ চালিয়ে আসলেও জনস্বার্থ বিরোধী অপকর্ম রুখতে প্রশাসন বাধ্য হয়েছে।
উল্লেখ্য নবনিযুক্ত টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মো. আবুল মনসুর ১৮ এপ্রিল টেকনাফে যোগদানের পর এটিই তাঁর প্রথম অভিযান।###

মতামত...