,

আফসোস হয় ছোটবেলা থেকেই যদি ধর্মীয় শিক্ষা পেতাম: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আলো নিউজ ২৪ ডেস্ক:

আমার এখন আফসোস হয় আমি যদি ছোটবেলা থেকে ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত হতাম। ধর্ম সম্পর্কে আরো বেশি জানতে পারতাম। দাওয়াতুল হকের ইজতেমায় দেওয়া এক বক্তব্যে একথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যাপারে বলেন, আমাদের প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনা পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন। তাহাজ্জুত নামাজ পড়েন। কখনো তাকে মিটিংয়ে ডাকা হলে যদি নামাজের ওয়াক্ত হয়ে যায় তিনি আগে নামাজ পড়ে নেন।
তিনি বলেন, সরকার নিজ থেকে আপনারদের স্বীকৃতি দিয়েছে। আপনাদের কর্মসংস্থান বাড়ছে। আমার কিন্তু আপনাদের সেই বিশাল লম্বা মানববন্ধনের কথা এখনও মনে আছে। আমি ভুলিনি।
তিনি আরও বলেন, আপনারা জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে যেভাবে দাঁড়িয়েছিলেন মাদকের বিরুদ্ধে তেমন দাঁড়াবেন এটা আমি আশা করি। কিছু দিন আগে টঙ্গিতে যে রক্তাক্তের কাহিনী ঘটেছে সেদিকে আপনারা খেয়াল রাখবেন। তবলিগ এটা আপনাদের কাজ। এটা যেন অন্যদের হাতে না চলে যায়। অনেক ব্যস্ততা থাকা সত্ত্বেও আমি এখানে এসেছি।
তিনি বলেন, আমি অনেক দেশে সফর করেছি, এক কাতার দুই কাতারের বেশি মুসল্লি দেখিনি। কিন্তু বাংলাদেশে মসজিদে মুসল্লিতে ভারে যায়। এটা আপনাদের অবদান। হুজুরদের অবদান। আজ বাংলাদেশে মাদরাসা মসজিদে পূর্ণ।
বাংলাদেশের সরকার প্রতিটি জেলায় সুন্দর একটা মসজিদ নির্মাণ করে দিচ্ছেন। এই দেশে আমাদের দেশ। এটার সবকিছু আমাদের ভাবতে হবে।
সবার কাছে দুয়া চেয়ে তিনি বলেন, আপনার আমার জন্য দুয়া করবেন যেন আমার দাযিত্ব সঠিকভাবে পালন করতে পারি। এই বলে স্বরাষ্টমন্ত্রী তার বক্তব্য শেষ করেন।
মজলিসে দাওয়াতুল হকের আমির আল্লামা মাহমূদুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত ইজতেমায় বয়ান করেন, ধর্মপ্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ আবদুল্লাহ, পীর প্রফেসর হামিদুর রহমান, কাকরাইল মারকাজের শুরা প্রধান হাফেজ মাওলানা যুবায়ের, মুফতি মিযানুর রহমান সাঈদ, মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী প্রমুখ।

মতামত...