,

টেকনাফে কাদিয়ানী বিরোধী মানববন্ধন প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত

bনিজস্ব সংবাদদাতা::
আগামী ২২,২৩,২৪ ফেব্রুয়ারী পঞ্চগড়ে কাদিয়ানী’র আহুত জাতীয় ইজতেমা বন্ধ ও সরকারীভাবে কাদিয়ানীদের কাফের ঘোষনার দাবীতে মানববন্ধন, প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৩ ফেব্রুয়ারী বুধবার বিকাল ২টায় টেকনাফ উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে উপজেলা কওমী মাদরাসা পরিষদের ব্যানের উক্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এ উপলক্ষে টেকনাফ পৌর সভার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে ওলামাদের নেতৃত্বে খন্ড খন্ড বিক্ষোভ মিছিল এসে জমায়েত হয়। সেখান থেকে বের হয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমাবেশ ও মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেন। এতে টেকনাফের সর্বত্র জনসাধারণ অংশ নেয়।
এসময় টেকনাফ আল জামেয়া আল ইসলামীয়া মাদরাসার পরিচালক শায়খুল হাদিস মুফতি মো. কিফায়ত উল্লাহ শফিক বলেন, আমাদের নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) শেষ নবী। তার পর কোন নবী রাসুল পৃথীবিতে আগমন করবেনা। কিন্তু দুঃখের সাথে বলতে হয়, যুগে যুগে কিছু ভন্ডের অভির্বাভ ঘটেছে। তারা নিজেকে মিথ্যা নবীর দাবী করে বসে। এমনি একজন হচ্চে গোলাম আহমদ কাদিয়ানী। তিনিও নিজেকে নবী দাবী করেছে।তাদের কিছু অনুসারী বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থান করছে। ইতি মধ্যে কয়েকটি দেশে তাদেরকে (কাফের) অমুসলিম ঘোষনা করা হয়েছে। আমরাও বাংলাদেশ সরকারের কাছে দাবী জানাচ্ছি কাদিয়ানী সম্প্রদায়কে অবিলম্বে অমুসলিম ঘোষনা করা হোক। তারা অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের মত বসবাস করতে পারে । এবং আগামী ২২, ২৩, ২৪ ফেব্রুয়ারী পঞ্চগড়ে কাদিয়ানীদের আহুত জাতীয় ইজতেমা বন্ধ করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবী জানিচ্ছি। এছাড়া সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাওঃ ছলিম উল্লাহ, মাওঃ সাইফুল ইসলাম সাইফী, প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান মাওঃ রফিক উদ্দীন, সাবরাং বড় মাদরাসার মুহতামিম মাওঃ নুর আহমদ, টেকনাফ উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী হাফেজ নুরুল হক সহ
গণ্যমান্য ব্যক্তি ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

মতামত...