,

ইন্দোনেশিয়ায় তালাবদ্ধ দোকান থেকে ১৯৩ বাংলাদেশী উদ্ধার

ডেস্ক নিউজ ::

ইন্দোনেশিয়ায় একটি তালাবদ্ধ দোকান থেকে ১৯৩ বাংলাদেশীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল দেশটির সুমাত্রা দ্বীপের মেদান শহর থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। ইমিগ্রেশন কর্মকর্তারা বলছে, তাদেরকে মালেশিয়ায় পৌছে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় আনা হয়েছে। উত্তর সুমাত্রার ইমিগ্রেশন প্রধান ফেরি মোনাং সিহিতে বলেন, উদ্ধারকৃত বাংলাদেশিরা পর্যটক ভিসা ব্যবহার করে বালি ও যোগিযাকার্তা শহর দিয়ে ইন্দোনেশিয়ায় প্রবেশ করে। পরে মালেশিয়ায় কাজের সন্ধানে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল । তাদেরকে লোভ দেখিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে। তারা মানবপাচারের শিকার। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার রাতে তাদের উদ্ধার করা হয়।পরে ইমিগ্রেশনের বন্দিশালায় নেয়া হয়। উদ্ধারকৃতরা শারিরীককভাবে সুস্থ রয়েছেন। তাদেরকে দ্রুত বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে ইন্দোনেশিয়ার ইমিগ্রেশন কর্মকর্তারা। স্থানীয় গণমাধ্যম ত্রিবুন মেদানের খবরে উদ্ধারকৃত মাহবুব নামের এক বাংলাদেশীর উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, পাচারকারীরা তাদের অনেককে প্রায় ৩ মাস ধরে আটকে রেখেছে। মাহবুব বলেন- আমরা সবাই প্রতারিত হয়েছি। আমাদেরকে মালেশিয়ায় নেয়ার কথা বলা হয়েছিল। সেজন্য বালির উদ্দেশ্যে আমরা বাংলাদেশ ছেড়েছিলাম। চার দিনের বাসযাত্রায় আমরা এখানে পৌঁছেছি।’ স্থানীয় গণমাধ্যমের খবর অনুসারে, ওই দোকান থেকে সন্দেহজনক শব্দ পেয়ে প্রতিবেশীরা পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃতদের সবাই বাংলাদেশী। তাদের  মধ্যে কোন রোহিঙ্গা মুসলিম নেই বলে নিশ্চিত করেছে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ।

মতামত...