,

তাবলীগ জামাতে বিভক্তি ইসলাম বিদ্বেষীদের ষড়যন্ত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক: :

তাবলীগ জামাতের বিভক্তির পিছনে ইসলাম বিদ্বেষীদের ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম জামিয়া জিরির প্রধান পরিচালক আল্লামা শাহ মুহাম্মদ তৈয়ব সাহেব। তিনি বলেন যুগ যুগ ধরে জামাতে তাবলীগের কাজ স্বমহীমায় চল আসছে। তাবলিগ জামাতের চলমান বিভক্তি ও হতাহতের ঘটনা খুবই ন্যাক্কারজনক ঘটনা। টঙ্গী ইজতেমার মাট দখল করতে গিয়ে ওলামায়ে কেরাম, তাবলীগের সাধারণ সাথী, এবং মাদ্রাসার নিরস্ত্র ছাত্রদের উপর নির্মম হামলা ও হতাহতের বড় দুঃখ ও বেদনাদায়ক। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।নিজেদের মধ্যে এমন অপ্রিতিকর ঘটনা তাবলীগ জামাতের ইতিহাসে একটি কালো অধ্যায় হয়ে থাকবে। শাহ সাহেব হুজুর আরো বলেন ,দাওআতে তাবলীগ হল ঈমান আমল শিক্ষার একটি অন্যতম প্ল্যাটফর্ম। ঈমান আমল শিক্ষার সঙ্গে সঙ্গে পরস্পরের মাঝে মিল জোড় ও মুহাব্বত সৃষ্টি করা তাবলীগ জামাতের অন্যতম উদ্দেশ্য। তাই পরস্পরের মাঝে কাদা ছুড়া ছুড়ি না করে এক অপরের প্রতি সহানুভূতিশীল হয়ে কাজ করতে হবে। তাবলীগ জামাতের প্রতিষ্ঠিতা আল্লামা ইলিয়াস (রাঃ) হতে পরবর্তী তিন হযরত কে অনুসরণ করে এই কাজ আন্জাম দিতে হবে। তবেই এই কাজের উদ্দেশ্য পুরণ হবে আমাদের। এএই হামলায় পরোক্ষ প্রত্যক্ক ভাবে যারাই জড়িত তারা কখনো দ্বীনদ্বার তাবলীগ ওয়ালা মুসলমান হতে পারেনা। এখানে ইসলাম বিদ্বেষীদের ষড়ষন্ত্র রয়েছে। আমি বাংলাদেশ সরকারের কাছে আশা করছেি মুলদ্বারার তাবলীগের মুরুব্বিদের নিয়ে তথা হক পন্থী আলেম ওলামাদের সাথে নিয়ে প্রসাশনের হস্তক্ষেপ পরিস্থিতি স্বভাবিক করার ব্যবস্থা করার অনুরোধ জানায় । এবং ফিতনা ফাসাদ সৃষ্টি কারী সাদ ওয়াসিফ গং পন্থীদের চিহ্নিত করে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা। যাতে এমন পরিস্থিতি দ্বিতীয় বার আর না ঘটে। মহান আল্লাহ আমাদের সকলকে হেদায়েত দান করেন আমিন।

মতামত...