,

মহেশখালী-কুতুবদিয়া অঞ্চলের ৬ বাহীনির ৪৩ জলদস্যু ও সন্ত্রাসীর আত্মসমর্পণ

মহেষখালী সংবাদদাতা: :
সকল কল্পনা-জল্পনা আর সন্দেহের অবসান ঘটিয়ে অবশেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে হাতে অস্ত্র তুলে দিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে মহেশখালী-কুতুবদিয়া অঞ্চলের ৬ বাহীনির ৪৩ জন জলদস্যু ও সন্ত্রাসী। তারা থেকে ৯৪টি অস্ত্র ৭৬৩৭টি গুলাবারুধসহ আতœসমর্পণ জলদস্যু ও দাগী সন্ত্রাসী। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১২টায় বড়মহেশখালী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই আত্মসমর্র্পণ করেন এসব সন্ত্রাসী ও জলদস্যুরা। এসব সন্ত্রাসীর কাছে থেকে মহেশখালী-কুতুবদিয়া অঞ্চলের ৬বাহীনির ৪৩ জন জলদস্যু ৯৪টি অস্ত্র ৭৬৩৭টি গোলাবারুদ  পাওয়ার কথা জানিয়েছেন র‌্যাব সূত্র।

র‌্যাব সূত্র জানায়, অপরাধজগত ত্যাগ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য দীর্ঘদিন যাবত কৌশলে অপরাধীদের উৎসাহ প্রদান করা হচ্ছিল। পুলিশ ও র‌্যাব যৌথভাবে এই প্রচেষ্ট চালিয়ে আসছিলো। তবে এর মধ্যে মধ্যস্থতা করছেন দু’টি বেসরকারি টেলিভিশনের দু’সাংবাদিক। এরই অংশ হিসেবে আজ শনিবার ৬ বাহীনির ৪৩ সন্ত্রাসী ও জলদস্যু আত্মসমর্পণ করেছে। আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল প্রধান অতিথি ছিলেন। মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল এবং পুলিশের আইজি, র‌্যাবের ডিজি বেনজির আহমদ, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, র‌্যাব-৭ এর কমান্ডার, কোস্টগার্ডের কমান্ডারসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন।

মতামত...