,

আরামপ্রিয়দের জন্য দুঃসংবাদ!

আলো নিউজ ডেস্ক ::

সারাদিন অফিসের এক চেয়ারেই কাটান৷ এরপর বাসায় গিয়ে সোজা সোফায় গা এলিয়ে দেন৷ ভাবেন শরীরের বিশ্রাম প্রয়োজন৷ কিন্তু আসলে তা নয়৷

নড়চড় কম
সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, মাত্র ৯ ভাগ জার্মান নাগরিক পরিপূর্ণ স্বাস্থ্যকর জীবনপদ্ধতি অনুসরণ করেন৷ এর প্রধান কারণ, খুব বেশি নড়াচড়া হয় না৷ গড়ে প্রতিদিন সাড়ে সাত ঘণ্টা বসে বসে দিন কাটান৷ শুধু জার্মানরাই নন, ইদানিং এই প্রবণতা সারাবিশ্বেই দেখা যায়৷

বসে থাকা আর ধূমপান করা একই কথা?
স্বাস্থ্যঝুঁকির মাত্রা বিবেচনায় বসে থাকাকে ‘নিউ স্মোকিং’ বা নব্য ধূমপান বলা হয়৷ দেখা গেছে, ১৫ বছর ধরে যারা এভাবে বসে বসে দিন কাটান তাদের মধ্যে নিম্ন রক্তচাপ, দূর্বল রক্তপ্রবাহ, ক্যানসার, হৃদরোগ ও ডায়বেটিসের প্রবণতা প্রবল৷

সব বসে থাকা এক নয়
তবে অফিস চেয়ারে বসে থাকার চেয়ে বসে বসে টিভি দেখা বেশি ক্ষতিকর৷ যারা টিভিসেটের সামনে একটা লম্বা সময় বসে কাটান, তাদের ক্ষেত্রে রোগাক্রান্ত হবার প্রবণতা খুব বেশি৷

রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমছে
বিশেষ করে যেসব নারী বেশিরভাগ সময় বসে থাকেন, বয়স বাড়লে তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়৷ তো যারা এতদিন বসে বসে কাটিয়েছেন, তারা ভয় পাচ্ছেন৷ ভয় পাবার কিছু নেই৷ গবেষকরা বলছেন, যদি অভ্যাস বদলাতে পারেন, অর্থাৎ আগের মতো বসে না থেকে নড়াচড়া শুরু করেন, তাহলে ফিরে পাবেন আপনার সুস্বাস্থ্য৷

শুরু করছেন নড়াচড়া?
গবেষকরা বলছেন, যত বেশি আপনি বসে থাকছেন তত বেশি আপনার মৃত্যুঝুঁকিও তৈরি হচ্ছে৷ কিন্তু যদি আপনি একবারে ৩০ মিনিটের বেশি বসে না থেকে একটু নড়াচড়া করেন তাহলে ঝুঁকি এড়াতে পারবেন৷ তারা বলছেন, ৩০ মিনিট বসে থাকার পর অন্তত পাঁচ মিনিট একটু নড়াচড়া বা হাটাচলা করুন৷

দাঁড়ানো ডেস্ক
যারা অফিসে বসে বসে কাজ করেন, তাদের অবশ্য অন্য উপায়ও নেই৷ তবে এখন বেশ অ্যাডজাস্টেবল ডেস্ক পাওয়া যায়, যেগুলোতে আপনি কখনো দাঁড়িয়ে ও কখনো বসে কাজ করতে পারেন৷ তবে গবেষকদের কাছে এটা খুব ভালো কোনো সমাধান নয়৷ কারণ যদিও আপনি দাঁড়িয়ে কাজ করছেন, আপনি খুব বেশি শক্তিক্ষয় করছেন না৷

এখানেই শেষ নয়
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটা ঠিক যে যত কম বসে থাকবেন, তত স্বাস্থ্যের জন্য ভালো৷ তবে শরীরচর্চার বিকল্প কিন্তু নেই৷ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, সপ্তাহে দেড়শ’ মিনিট মাঝারি ধরনের শরীরচর্চা অথবা ৭৫ মিনিট কঠিন শরীরচর্চা করা উচিত৷

মতামত...