,

টেকনাফে পাঁচ কোটি ৯১ লক্ষ টাকার ইয়াবা ও চোরাই পন্য জব্দ : আটক-৪৬

নিজস্ব প্রতিনিধি::


মাদক বিরোধী সাঁড়াশি অভিযানের মধ্যে ও টেকনাফে ৫ কোটি ৯১ লক্ষ ২৩৯০০ টাকা মূল্যমানের ইয়াবা ও চোরাই পন্য জব্দ করেছে।
২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন সুত্রে জানাযায় গেল জুলাই মাসে টেকনাফ এর অধীনস্থ বিওপি ও ক্যাম্প সমূহ বিভিন্ন সময়ে টহল পরিচালনার মাধ্যমে পাঁচ কোটি ৯১ লক্ষ ২৩৯০০টাকার ইয়াবা ও চোরাই পন্য জব্দ করতে সক্ষম হয়। এসব ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ধারায় মোট ১৬৪ টি মামলা রুজু করেছে। এবং ৪৬জন পাচারকারীকে আটক করে। তবে অনেকাংশ চালানের সাথে পাচারকারী বা জড়িতদের আটক করতে পারেনি। আটককৃত মালামালের মধ্যে ৪ কোটি ০৮লাখ ,৪৫হাজার ৬শত টাকার ১লাখ ৩৬হাজার ১৫২ টি ইয়াবা রয়েছে। তার মধ্যে ১লাখ ৪হাজার ৪৮১পিস মালিক বিহীন ও ৩১ হাজার ৬৭১পিস মালিকসহ ইয়াবা জব্দ করে। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ধারায় ৬৫টি মামলা ধায়ের করে। ৪৪ পাচারকারীকে আটক করেছে। ৪ লাখ ৯৬ হাজার ৩৫০টাকার মালিক বিহীন বিভিন্ন মাদক দ্রব্য উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ৮টি মামলা রুজু করা হয়েছে।৫৬ হাজার ৭৫০ টাকার ২২৭ক্যান বিয়ার, ৪লাখ ২৭ হাজার৫০০টাকার ২৮৫ বোতল বিদেশী মদ,১২ হাজার টাকার ৪০লিটার চোলাই মদ,১শটাকার ৩৫গ্রাম গাঁজা রয়েছে। এঘটনায় ও সংশ্লিষ্ঠ ধারায় ৮টি মামলা দায়ের করে। এছাড়া ১কোটি ৭৭লাখ ৮২ হাজার ৪০টাকার অন্যান্য চোরাই পন্য উদ্ধার করা হয়েছে। এবং ৯১টি মামলা দায়ের করে।
২বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এর অধিনায় লেঃ কর্ণেল মোঃ আছাদুদ-জামান ছৌধূরী জানান সীমান্তে ইয়াবা ও চোরকারবারী বন্ধে বিজিবি’র জওয়ানরা সর্বদা তৎপর থাকে। ইয়াবা পাচারকারীরা দেশ ও সমাজের শত্রু, এদের কোন রেহাই নেই। যে কোন মুল্যে সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি আরো জানা ৩১ জুলাই পর্যন্ত পাঁচ কোটি ৯১ লক্ষ ২৩৯০০টাকার ইয়াবা ও চোরাই পন্য জব্দ করা হয়েছে।

মতামত...