,

রোডসই টাইগারদের প্রধান কোচ

ডেস্ক নিউজ ::

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নতুন কোচ হতে যাচ্ছেন স্টিভ রোডস। আজ বিসিবি সভাপতি আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছেন, ৫৪ বছর বয়সী এই ইংলিশকেই কোচ হিসেবে দায়িত্ব চূড়ান্ত করা হয়েছে। ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকালেই ঢাকা এসে পৌঁছান সাবেক এই ইংলিশ অধিনায়ক। দুপুরের মধ্যে বৈঠক করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে। দুপুর গড়িয়ে বিকেল হতে না হতেই ঘোষণাটা চলে আসলো, ‘আগামী দুই বছরের জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কোচ হচ্ছেন স্টিভ রোডস।’

অবশেষে দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান ঘটতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। কোচ ক্ষরা কাটিয়ে স্বস্তির নাম হয়ে আসছে স্টিভ রোডস।

দীর্ঘ ছয় মাস কোচ হীনতায় ভুগছিল বাংলাদেশ দল। গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকা সফর দিয়ে হাতুরু সিং অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটে। হাতুরু অবশ্য নিজে থেকেই সরে গিয়েছিলেন।

এরপর প্রায় ছয় মাস চলে গেলেও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ব্যর্থ হয়েছিল নতুন কোচ নিয়োগ দিতে। মাঝে তিনটি সিরিজ চলে গেলেও বিসিবি পারছিল না নতুন কোচ আনতে।

তাই আর না পেরে বিসিবিকে স্বরণাপন্ন হতে হ্য় ভারতের সাবেক কোচ গ্যারি কারেস্টেনের। নতুন কোচ আনার দায়িত্বটা তার হাতেই ছেড়ে দেয় বিসিবি।

প্রোটিয়া কিংবদন্তির পরামর্শে ইংল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার স্টিভ রোডসের নাম উঠে আসে বিসিবির পছন্দের তালিকায়।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা এসে পৌঁছান ইংলিশদের হয়ে ১১টি টেস্ট আর ৯ ওয়ানডে খেলে ছিটকে পড়া এই উইকেট কিপার-ব্যাটসম্যান।

২০১৬ সালে রোর্ডস ইংল্যান্ড জাতীয় দলের জাতীয় দলের স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া রোডস বর্তমানে উস্টারশায়ারের পরিচালক (ক্রিকেট) হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে ইংলিশ কাউন্টি দলটির কোচ হিসেবেও কাছ করেছেন।

বিসিবির ভাবনায় মূলত ২০১৯ বিশ্বকাপ। কেননা আগামী বিশ্বকাপের আসর বসবে ইংল্যান্ডে। স্টিভ রোডস যেহেতু ইংলিশ একটি দলের প্রধানের ভূমিকায় আছেন তাই তাকে নিয়েই বিশ্বকাপ পরিকল্পনা সাজাতে সুবিধা হবে বলা যায়।

এর পরের বছর রয়েছে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের বিশ্বকাপ আর তাই সাবেক এই ক্রিকেটারের সঙ্গে ২০২০ সাল পর্যন্ত করা হয়েছে চুক্তি। নিশ্চিত করেছেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন নিজেই।

মতামত...