,

সাবরাংয়ে গ্রামীণ হারানো সংস্কৃতি ধরে রাখতে বৈশাখী মেলা ও বলি খেলা অনুষ্ঠিত

মোঃ আশেক উল্লাহ ফারুকী, টেকনাফ ::

টেকনাফ সাবরাং উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্যোগে গ্রামীণ হারানো সংস্কৃতি ধরে রাখতে দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বৈশাখী মেলা ও বলি খেলা উৎসাহ, উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শিক্ষার্থীদের মঙ্গল শুভযাত্রার মাধ্যমে নববর্ষ বরণ করা হয়। শুভাযাত্রাটি সাবরাংয়ের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে বিদ্যালয়ের মাঠে শিক্ষার্থীদের নিয়ে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এছাড়া সকালে মহিষের লড়াই, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে পান্তা-ইলিশ, রুটি-মাংস, খেলনা সামগ্রী, বিভিন্ন ধরনের পিঠার মেলা বসানো হয়। শিশুদের বিনোদনের জন্য রাখা হয়েছে নাগর দোলা। স্কুলের ৮ম, ৯ম ও ১০ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নিয়ে বলি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। তাদের বিভিন্ন কৌশল শিখিয়ে দেওয়ার জন্য উখিয়ার সামশু বলি, থায়ংখালীর ছিদ্দিক বলি ও রামুর দিদার বলিসহ ১৫ জন স্বনামধন্য ও প্রবীন বলিদের উপস্থিত রাখা হয়। এসব স্বনামধন্য বলিদের উপস্থিতি দুর দুরান্তের হাজার হাজার দর্শকের আকৃষ্ট করে এবং করতালির মাধ্যমে ক্ষুদে বলিদের উৎসাহ জুগিয়েছে। অধীর আগ্রহের সাথে গ্রামের হারিয়ে যাওয়া বলি খেলা উপভোগ করেন দর্শকরা।
বলিখেলা শেষে বিকাল সাড়ে চারটায় আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আনিসুর রহমানের প

রিচালনায় ও স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ শফিক মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তারা বলেন, গ্রামীন হারিয়ে যাওয়া সংস্কৃতি পূনঃদ্ধারে স্কুলের উদ্যোগে সম্পূর্ণ জুয়াখেলা ও মাদক মুক্ত পরিবেশে দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা ও বলিখেলা উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সম্মপন্ন হয়েছে। এলাকাবাসীর অংশগ্রহনই প্রমান করে হারানো সংস্কৃতি বর্তমান যুগের জন্য প্রযোজ্য। কেননা এটি বিলুপ্তির কারণে সমাজে অপসংস্কৃতিতে যুব সমাজ বিপথগামী হয়ে তারা ভিন্ন পথে পা বাড়াচ্ছে। এমতাবস্থায় এই গ্রামীন সংস্কৃতিগুলো পুনঃর্জিবীত করা নিতান্তই প্রয়োজন।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সাবরাং ইউপি চেয়ারম্যান নুর হোসেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য সোলতান আহমদ বিএ, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম, আবদুল গনি, জহির আহমদ, সাবেক মেম্বার সামশুল আলম। সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন প্রধান শিক্ষক মফিজ উদ দৌল্লাহ। পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উখিয়ার সামশু বলি, থায়ংখালীর ছিদ্দিক বলি ও রামুর দিদার বলিসহ ১৫ জন স্বনামধন্য, নবীন ও প্রবীন বলিদের মধ্যে পুরষ্কার ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়।
এদিকে সন্ধ্যায় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে লোক সংগীত অনুষ্ঠিত হয়।

মতামত...