,

সড়ক দূর্ঘটনায় ৬ জেলায় ঝরে গেল ১৮ প্রাণ

নিউজ ডেস্ক ::

ছয় জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ১৮ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় পৃথক দুর্ঘটনায় ১১ জন, চট্টগ্রামে ১, নাটোরে ১, যশোরে ২, কুমিল্লা ২, ময়মনসিংহে ১ জন রয়েছে। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ২৫ জন। শনিবার (১০ মার্চ) সকাল থেকে দুপুরের মধ্যে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

গাইবান্ধা: গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার দক্ষিণ বাসস্ট্যান্ড এলাকার সরকার পাম্পের সামনে বাস ও ভটভটির মখোমুখি সংঘর্ষে চারজন ও জুনদহ এলাকায় ট্রাক উল্টে নারীসহ ৭ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন ২৪ জন।

দুপুর ১২টায় উপজেলার জুনদহ এলাকা ও সকাল সাড়ে ৯টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পলাশবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নাকাই গ্রামের জাকির হোসেন (২৫), শিবপুর গ্রামের খশরু মিয়া (৫০) ও একই গ্রামের রাজু মিয়া (২৪)। অপর একজনের নাম জানা যায়নি।

অপর দুর্ঘটনায় নিহত ৭ জনের মধ্যে ৫ জনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন-নীলফামারী সদর উপজেলার আঙ্গারপাড়া গ্রামের রেজিয়া আকতার (৭০) ও মারুফা বেগম (৩৫), ফকিরপাড়ার মোতাহার (৪৫), কিশোরগাড়ীর উত্তর সিঙ্গারগাড়ী গ্রামের ফরহাদ (২০) ও ডোমারের বেতগাড়ী গ্রামের মফিজুল ইসলাম (৫৫)।

এদিকে, চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাস ও ম্যাজিক গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষে মো. তাহের (৩৮) নামে এক বাস চালক নিহত হয়েছেন।

সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চকরিয়া উপজেলার হারবাং গয়ালমারা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত তাহের সাতকানিয়া উপজেলার পেটুয়াপাড়া এলাকার আবদুর রশিদের ছেলে।

চমেক হাসপাতালে দায়িত্বরত জেলা পুলিশের এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

অপরদিকে, নাটোরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে হাসান মোল্লা (৩৬) নামে এক চালক নিহত হয়েছেন।

সকালে নাটোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। হাসান কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার খেমিরদিয়ার ভাটোপাড়া গ্রামের মৃত আমিরুল ইসলামের ছেলে।

ঝলমলিয়া হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমঙ্গীর হোসেন

মতামত...