,

এখনো থেমে নেই রোহিঙ্গা আসা, দুই নৌকায় এলো শতাধিক

আখতার হোসেন হিরু, টেকনাফ॥

রাখাইন থেকে এখনো আসছে রোহিঙ্গারা। শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারী) ভোরে বঙ্গোপসাগর পাড়ি দিয়ে টেকনাফের সমুদ্র উপকুলীয় মহেষখালীয়া পাড়া এলাকা দিয়ে ২টি নৌকায় শতাধিক রোহিঙ্গা এপারে ঢুকেছে। যথারীতি এপারে আসা রোহিঙ্গারা বাস স্টেশন এলাকায় আসলে সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ ও আনসার সদস্যরা তাদেরকে হারিয়াখালী অস্থায়ী সেনা ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাদেরকে উখিয়া-টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প গুলোতে পাঠানো হবে।
শনিবার স্বপরিবারে আসা রাখাইনের রাচিদং থানার সাংগুদাইন গ্রামের রোহিঙ্গা ষাটোর্ধ্ব ইউছুপ জানায়, মূলত সেখানে থাকা রোহিঙ্গারা এখন অবরুদ্ধ অবস্থার মধ্যে রয়েছে। গ্রাম ছেড়ে তারা কোথাও কাজে-কর্মে যেতে পারে না। গোপনে পাহাড়ে অথবা খালে বিলে গেলে সেখানে গিয়ে বর্মী সেনারা নির্যাতন শুরু করে দেয়। ফলে গ্রামে দিনের পর দিন অবরুদ্ধ অবস্থায় থেকে খাদ্য সংকট তীব্র আকার ধারন করে। আবার সেনারা ধরে নিয়ে গিয়ে এনবিসি কার্ড ধরিয়ে দেয়। তাই বাধ্য হয়ে তারা এপারে চলে আসে। সপ্তাহ দুয়েক আগে থেকে তারা ডংখালী সীমান্তে এসে অবস্থান নেয়। শুক্রবার দিনগত রাতে এপার থেকে দুইটি নৌকা ডংখালী সীমান্তের কাছে গেলে তাতে করে তারা এপারে চলে আসে।
একই নৌকায় স্বপরিবারে আসে বুচিডং কোয়াইনশং এর আবুল বশর, ফোখম এর জাফর হোসেন সহ শতাধিক রোহিঙ্গা।
বাস স্টেশন এলাকায় দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা জানান, শনিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ১০১ জন রোহিঙ্গাকে তালিকাভূক্ত করে অস্থায়ী সেনা ক্যাম্পে প্রেরন করা হয়েছে।

মতামত...