,

কুতুবদিয়ায় সওজ’র জায়গায় গর্ত করে মাটি নিয়ে যাওয়ায় মারাতœক ঝুঁকিতে দু’সড়ক

রাসেল, কুতুবদিয়া []kutudia-Azam Road-01

কুতুবদিয়ায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গা দখল করে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ায় “আজম সড়ক এবং মশরফ আলী বলি সড়ক” এর ফাঁটল ধরে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। দ্বীপের দক্ষিণ ধুরুং ইউনিয়নের দরবার রাস্তার মাথায় মশরফ আলী বলি পাড়া গ্রামীন সড়ক ও আজম সড়কের মাঝখানে এক প্রভাবশালী ব্যাক্তি গর্ত করে মাটি নিয়ে যাওয়ায় এ দু’সড়ক ভেঙে যাচ্ছে। এলাকাবাসী সূত্রে প্রকাশ, গত দুই সপ্তাহে পূর্বে বরইতলীপাড়ার বাসিন্দা শাহজাহান নিজ ব্যাক্তিগত কাজে ব্যবহারের জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) এর জায়গায় গভীর গর্ত করে মাটি নিয়ে যাওয়ায় বর্তমানে দুই সড়কে ফাঁটল ধরেছে। মশরফ আলী বলি সড়ক দিয়ে করিম সিকদার পাড়া, তহলীপাড়া,বাইগ্যার পাড়া,মশরফ আলী বলিপাড়াসহ এ ৪ গ্রামের প্রায় ৫ হাজার পথচারী ও শিক্ষার্থীরা এ সড়ক দিয়ে চলাচল করে থাকে। স্থানীয় ব্যবসায়ী আলী হোসেন জানান, দূর্বৃত্তরা যেভাবে সড়কের পাশ থেকে গর্ত করে মাটি কেঁটে নিয়ে গেছে তাতে আসন্ন বর্ষা মৌসুম শুরু হলে বৃষ্টির পানিতে সড়ক ও জনপথের আজম সড়ক ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় (্এলজিইডির) সড়ক ভেঙে যাবে। মশরফ আলী বলীর পাড়ার বাসিন্দা নেজাম উদ্দিন জানান, এক ব্যাক্তি ব্যাক্তিগত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার জন্য সড়কের নিকট থেকে গর্ত করে মাটি নিয়ে যায়। দক্ষিণ ধুরুং ইউপির সদস্য মোক্তার আহমদের সাথে এ বিষয়ে কথা হলে তিনি জানান, সড়কের নিকট গর্ত করে মাটি কাটাঁর সময় বাধাঁ দিলে স্থানীয় শাহজাহান তা বাধাঁ মানে নি। স্থানীয় ইউপির চেয়ারম্যানকে এ বিষয়ে অবহিত করেছে বলে নিশ্চিত করেন। এছাড়াও কক্সবাজার সড়ক বিভাগের কর্তৃপক্ষকে টেলিফোনে জানানো হয়েছে। এ ব্যাপারে কক্সবাজার জেলার সড়ক ও জনপথ বিভাগর কর্তৃপক্ষের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার জন্য চেষ্টা করলে কর্র্তপক্ষকে পাওয়া যায়নি। অবশ্য কুতুবদিয়া উপজেলায় সড়ক বিভাগের অফিস না থাকায় এ দূর্ভোগে পড়তে হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*